কেন্দ্রের অপরিকল্পিত নোটবন্দির ফলেই বেহাল হয়েছে কর্মসংস্থান: মনমোহন সিং

২০১৬র নভেম্বরে দেশের অঙ্গরাজ্যগুলোর সঙ্গে কোনওরকম আলোচনা ছাড়াই রাতারাতি নোটবাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে অর্থনীতিবিদ মনমোহনের অভিযোগ, এটা যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থার পরিপন্থী, ক্ষতিকারক।
কেন্দ্রের অপরিকল্পিত নোটবন্দির ফলেই বেহাল হয়েছে কর্মসংস্থান: মনমোহন সিং
ডঃ মনমোহন সিংফাইল ছবি সংগৃহীত

৫ বছর পেরিয়ে গেলেও দেশের অর্থনৈতিক ক্ষেত্রের উপর নোটবন্দির ছাপ এখন স্পষ্ট এবং ক্ষত এখন দগদগে। যার প্রভাবে বেহাল কর্মসংস্থানই তার প্রমাণ। কেরলের এক সম্মেলনে ভার্চুয়ালি উপস্থিত থেকে এই ভাষাতেই ফের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা নিয়ে তোপ দাগলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ও অর্থনীতিবিদ মনমোহন সিং।

করোনা পরবর্তী সময়ে বেকারত্বের হাল নিয়ে বলতে গিয়ে মনমোহন সিংয়ের বক্তব্য, চিন্তাভাবনা না করে নোটবন্দি করার জন্যেই দেশে বেকারত্বের হার ক্রমেই বেড়ে চলেছে। ২০১৬ সালের নভেম্বরে দেশের অঙ্গরাজ্যগুলোর সঙ্গে কোনওরকম আলোচনা ছাড়াই রাতারাতি নোটবাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে অর্থনীতিবিদ মনমোহনের অভিযোগ, এটা যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থার পরিপন্থী, ক্ষতিকারক।

দিন কয়েক আগেই মোট ৫টি রাজ্যে বিধানসভা ভোটের দিন ঘোষণা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে কেরলও। এখানে এক দফায় ভোট হবে ৬ এপ্রিল। ভোটের আগে রাজীব গান্ধি ইনস্টিটিউট অব ডেভলপমেন্ট স্টাডিজ আয়োজন করেছিল 'প্রতীক্ষা ২০৩০' নামে একটি সম্মেলনের। সেখানেই ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে দেশের বেকারত্বের হার নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন মনমোহন। প্রবীণ অর্থনীতিবিদ বলেন, 'দেশে বেকারত্বের হার ভয়াবহ। অসংগঠিত ক্ষেত্র ভেঙে পড়েছে। এর জন্য দায়ী ২০১৬ সালের অপরিকল্পিত বিমুদ্রাকরণের সিদ্ধান্ত।'

কেন্দ্রকে নিশানা করে তিনি আরও বলেন, 'ভারতের অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক দর্শনের অন্যতম ভিত্তি হল যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থা এবং রাজ্যগুলোর সঙ্গে নিয়মিত আলোচনা-পর্যালোচনা। সংবিধানে তেমনটাই বলা হয়েছে। কিন্তু বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার প্রায় কোনও আলোচনাই করে না।'

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in