৪.২৬ কোটি ষাটোর্ধ্ব, ৮.২৩ লাখ স্বাস্থ্যকর্মী এখনও টিকার দ্বিতীয় ডোজ পাননি, জানালো স্বাস্থ্য মন্ত্রক

কেন্দ্রীয় সরকারের প্রভিশনাল রিপোর্ট অনুসারে এখনও পর্যন্ত ১০৮ কোটি ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। যার মধ্যে শেষ ২৪ ঘণ্টায় ২০,৭৫,৯৪২ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে।
৪.২৬ কোটি ষাটোর্ধ্ব, ৮.২৩ লাখ স্বাস্থ্যকর্মী এখনও টিকার দ্বিতীয় ডোজ পাননি, জানালো স্বাস্থ্য মন্ত্রক
প্রতীকী ছবি

ভারতে ৬০ বছরের বেশি বয়সী জনসংখ্যার মধ্যে ৬,৭৮,২৭,৫৯১ এখনও পর্যন্ত কোভিড ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ পেয়েছেন। মাত্র একটি ডোজ পেয়েছেন ১১,০৪,৫৫,০১৬ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে শনিবার একথা জানানো হয়েছে। অর্থাৎ ৬০ বছরের বেশি বয়সীদের মধ্যে এখনও পর্যন্ত ৪,২৬,২৭,৪২৫ জন এখনও পর্যন্ত ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ পাননি।

কেন্দ্রীয় সরকারের প্রভিশনাল রিপোর্ট অনুসারে এখনও পর্যন্ত ১০৮ কোটি ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। যার মধ্যে শেষ ২৪ ঘণ্টায় ২০,৭৫,৯৪২ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে।

এদিন এক ট্যুইট বার্তায় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মোট ১০৮ কোটি কোভিড ভ্যাকসিনের ডোজ দেওয়া হয়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকারের রিপোর্ট অনুসারে স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে ১,০৩,৭৯,৫৩০ জনকে ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। দুটি ডোজ পেয়েছেন ৯২,৫৬,২২৫ জন। অর্থাৎ এই ক্ষেত্রেও এখনও পর্যন্ত ৮,২৩,৩০৫ জন স্বাস্থ্যকর্মী এখনও পর্যন্ত দ্বিতীয় ডোজ পাননি।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের রিপোর্ট অনুসারে, ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীদের মধ্যে মোট ৪২,৩৩,৪৯,৮১২ জন প্রথম ডোজ পেয়েছেন। এই বয়সীদের মধ্যে দুটি ডোজ পেয়েছেন ১৪,৮৯,৩৮,৪১২ জন। এক্ষেত্রে এখনও দ্বিতীয় ডোজ পেতে বাকি আছে ২৭,৪৪,১১,৪০০ জন।

ওই রিপোর্টেই জানানো হয়েছে ৪৫ থেকে ৫৯ বছর বয়সীদের মধ্যে প্রথম ডোজ পেয়েছেন ১৭,৬০,৮৮,৩৭৫ জন এবং দুটি ডোজ পেয়েছেন ৯,৮৫,৪০,১৮০ জন। এক্ষেত্রে দ্বিতীয় ডোজ পেতে বাকি আছে ৭,৭৫,৪৮,১৯৫ জন।

কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য অনুসারে দেশের বিভিন্ন রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে এখনও ১৫.৬৯ কোটি ভ্যাকসিন মজুত আছে। বিভিন্ন রাজ্য এবং কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলকে বিনামূল্যে দেওয়া হয়েছে ১১৬.৫৪ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন।

যদিও কেন্দ্র যদি ১১৬.৫৪ কোটি ভ্যাকসিন দিয়ে থাকে এবং ১৫.৬৯ কোটি ভ্যাকসিন এখনও থেকে থাকে তাহলে মোট ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে ১০০.৮৫ কোটি।

-With IANS Inputs

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in