বিশ্বকর্মা পুজোতেও বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা - সতর্কতা জারি আবহাওয়া দপ্তরের

১৮ তারিখ পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এবং সংলগ্ন অঞ্চলে একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যা পরবর্তী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে একটি নিম্নচাপে পরিণত হবে।
ছবি - প্রতীকী
ছবি - প্রতীকী

শনিবারেও বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। স্পষ্ট জানিয়ে দিল আবহাওয়া দপ্তর। আগেই জানানো হয়েছিল সেপ্টেম্বর মাসে তিনটি নিম্নচাপের ফলে বৃষ্টিপাত হবে। চলতি বছরে বৃষ্টির যে ঘাটতি তা নিমনচাপের ফলে কিছুটা হলেও মিটবে।

আবহাওয়া দপ্তরের আধিকারিক জানান, এই মুহূর্তে উত্তরপ্রদেশের মধ্যভাগে অবস্থান করছে অর্থাৎ সেন্ট্রাল পার্টস অফ ইউপি। মৌসুমী অক্ষর সুস্পষ্ট নিম্নচাপের কেন্দ্র থেকে আমাদের রেজিয়ামে পাটনা হয়ে দিঘা হয়ে আমাদের বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত আছে। এর ফলের আগামী কয়েক দিন অর্থাৎ বিশেষ করে আজকে এবং কালকে এই দুদিন দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলোতে বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হবে।

সুস্পষ্ট নিম্নচাপ যেহেতু উত্তর প্রদেশ থেকে আরও একটু উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হবে। ফলে উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি বাড়বে আগামী ৪৮ ঘন্টায়। বিশেষ করে দার্জিলিং, কালিম্পং ও জলপাইগুড়ির বেশকিছু স্থানে বৃষ্টিপাত হবে। পরে আলিপুরদুয়ার এবং কোচবিহার জেলাতে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়বে। এই জেলাগুলোর দু-এক জায়গায় ইতিমধ্যে ভারী বৃষ্টির সতর্কতাও জারি করা হয়েছে।

পাশাপাশি তিনি বলেন, ১৮ তারিখ পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এবং সংলগ্ন অঞ্চলে একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যা পরবর্তী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে একটি নিম্নচাপে পরিণত হবে। এখনও পর্যন্ত ঘূর্ণাবর্তের যা পরিস্থিতি সেটা উড়িষ্যার দিকেই অগ্রসর হবে। আগামী পাঁচদিনের মধ্যে উপকূলবর্তী জেলাগুলোতেও একটু বৃষ্টি বাড়বে। আকাশ মূলত মেঘলা থাকবে। এই আবহাওয়া থাকার ফলে তাপমাত্রা কিছুটা হলেও কমবে। আপাতত আগামীদিনে দক্ষিণের জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in