বাংলা ও হিন্দি ভাষাতেও ঘৃণ্য কন্টেন্ট শনাক্ত করা হয়, সাম্প্রদায়িক পোস্টে প্রশ্রয়ের অভিযোগের পর FB

ফেসবুক জানিয়েছে, "বিশ্বব‍্যাপী মুসলিম ও প্রান্তিক গোষ্ঠির বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক মন্তব্য ক্রমাগত বাড়ছে। অনলাইনের মাধ্যমেও ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে। তা রুখতে আমরা আমাদের নীতিগুলো আপডেট করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।"
বাংলা ও হিন্দি ভাষাতেও ঘৃণ্য কন্টেন্ট শনাক্ত করা হয়, সাম্প্রদায়িক পোস্টে প্রশ্রয়ের অভিযোগের পর FB
প্রতীকী ছবি

ভারতে ফেসবুকের‌ মাধ‍্যমে সবথেকে বেশি আপত্তিকর ও সাম্প্রদায়িক কন্টেন্ট প্রচার করা হচ্ছে। কিন্তু ফেসবুক এর বিরুদ্ধে কোনো ব‍্যবস্থাই নিচ্ছে না। মার্কিন সেনেটের সামনে ফেসবুকের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছিল ওই সংস্থারই প্রাক্তন কর্মী হুইসেলব্লোয়ার ফ্রান্সেস হাউজেন। কিন্তু সামাজিক মাধ‍্যমটি সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে জানিয়েছে, হিংসা উসকে দেয় এরকম ঘৃণ‍্য মন্তব্য ও কন্টেন্ট সক্রিয়ভাবে নিষিদ্ধ করছে তারা।

IANS-কে দেওয়া এক বিবৃতিতে ফেসবুকের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, বছরের পর বছর ধরে তারা এমন প্রযুক্তিতে উল্লেখযোগ্যহারে বিনিয়োগ করছে যা ঘৃণ্য মন্তব্যকে সক্রিয়ভাবে শনাক্ত করে। এমনকি ব্যবহারকারীদের রিপোর্ট করার আগেই তা হয়ে যায়। মুখপাত্রের কথায়, বিশ্বব্যাপী ৪০টি ভাষার পাশাপাশি বাংলা ও হিন্দিতেও হিংসাত্মক কন্টেন্ট সক্রিয়ভাবে শনাক্ত করতে এই প্রযুক্তির ব্যবহার করে ফেসবুক।

তিনি আরও জানিয়েছেন,‌ তাদের কাছে একটি দল‌ রয়েছে যারা ভারতের ২০টি ভাষার কন্টেন্ট রিভিউ করে। তিনি বলেছেন, "বিশ্বব‍্যাপী মুসলিম ও প্রান্তিক গোষ্ঠির বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক মন্তব্য ক্রমাগত বাড়ছে। অনলাইনের মাধ্যমেও ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে। তা রুখতে আমরা আমাদের নীতিগুলো আপডেট করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।"

ফেসবুকে ঘৃণ‍্য মন্তব্য ছড়ানো নিয়ে মার্কিন সিকিউরিটিজ অ‍্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (SEC)-এর কাছে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন ফ্রান্সেস হাউজেন। অভিযোগে খুব স্পষ্টভাবে RSS ও BJP-র দিকে আঙুল তুলেছিলেন তিনি। তিনি বলেছেন, "হিন্দু জনগোষ্ঠীর মধ্যে উস্কানি ছড়াতে RSS কর্মী, RSS পন্থী পেজ এবং গ্রুপগুলিতে‌ প্রতিনিয়ত ভয় ছড়ানো হয়, মুসলিম-বিরোধী বিবৃতি দেওয়া হয়।" পশ্চিমবঙ্গে এই ভুয়ো প্রচার মারাত্মক চেহারা নিয়েছে বলে জানিয়েছেন হাউজেন।

বিজেপি বা আরএসএসের পক্ষ থেকে এখনও পর্যন্ত এনিয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

-With IANS Inputs

বাংলা ও হিন্দি ভাষাতেও ঘৃণ্য কন্টেন্ট শনাক্ত করা হয়, সাম্প্রদায়িক পোস্টে প্রশ্রয়ের অভিযোগের পর FB
ফেসবুকের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক পোস্ট প্রশ্রয় দেওয়ার অভিযোগ প্রাক্তন কর্মীর, কাঠগড়ায় RSS

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.