Elon Musk: বিজ্ঞপ্তি ছাড়া গণছাঁটাই, 'টেসলা'র বিরুদ্ধে মামলা বরখাস্ত হওয়া কর্মীদের

যুক্তরাষ্ট্রের নেভাডা রাজ্যে অবস্থিত টেসলা’র গিগাফ্যাক্টরিতে কর্মরত ৫০০জনের বেশি কর্মী ছাঁটাই করা হয়েছে। এই ৫০০জনের মধ্যে জন লিঞ্চ এবং ডাক্সটন হার্টসফিল্ড নামে দু’জন কর্মীর বয়ান পাওয়া গেছে।
Elon Musk: বিজ্ঞপ্তি ছাড়া গণছাঁটাই, 'টেসলা'র বিরুদ্ধে মামলা বরখাস্ত হওয়া কর্মীদের
এলন মাস্কগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

বৈদ্যুতিক গাড়ি প্রস্তুতকারী সংস্থা ‘টেসলা’র বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল আইন লঙ্ঘনের। মামলা দায়ের করেছে, বরখাস্ত হয়ে যাওয়া টেসলার প্রাক্তন কর্মচারীরা।

দ্য ভার্জ, নামের একটি আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থার রিপোর্টে বলা হয়েছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেভাডা রাজ্যে অবস্থিত টেসলা’র গিগা ফ্যাক্টরিতে কর্মরত ৫০০ জনের বেশি কর্মী ছাঁটাই করা হয়েছে। এই ৫০০ জনের মধ্যে জন লিঞ্চ এবং ডাক্সটন হার্টসফিল্ড নামে দু’জন কর্মীর বয়ান পাওয়া গেছে। যারা নেভাডার ওই ফ্যাক্টরিতে কর্মরত ছিলেন।

টেসলা’র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়, ‘গণ-ছাঁটাই এবং পুনঃপ্রশিক্ষণ বিজ্ঞপ্তির আইন’ (WARN) লঙ্ঘন করার অভিযোগে। এই আইনে উল্লেখ আছে, কোম্পানির নিয়োগকর্তাদের দ্বারা কোনও সুযোগ-সুবিধা বন্ধ করার পূর্বে বা ফ্যাক্টরি সাইট থেকে ৫০ জন বা তার বেশি কর্মী ছাঁটাই করার কমপক্ষে ২ মাস (৬০দিন) আগে কর্মীদের এই সমস্যার বিষয়ে জানাতে হবে। এই WARN নামক মার্কিনী আইন লঙ্ঘন করেছে ‘টেসলা’।

প্রসঙ্গত, ‘টেসলা’ তার কর্মচারীদের বরখাস্ত করার বিষয়ে কোনও অগ্রিম লিখিত নোটিশ দিতে ব্যর্থ হয়েছে। উপরন্তু, ‘টেসলা’ কর্মচারীদের জানিয়েছে, যে তাঁদের ছাঁটাই অবিলম্বে কার্যকর হবে। এরপর ছাঁটাইকর্মীরা, তাঁদের ৬০ দিনের বেতন ও কিছু ন্যূনতম সুবিধার দাবিতে মামলা দায়ের করে। মামলার সুবিধার্থে ‘ক্লাস-অ্যাকশন স্ট্যাটাস’ -এর অনুরোধ করেছিলেন তাঁরা।

মঙ্গলবার এলন মাস্ক বলেছেন, যে 'টেসলা' আগামী ৩মাসের মধ্যে কর্মীদের বেতন ১০ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া হবে এবং মোট কর্মীর সংখ্যা প্রায় ৩.৫ শতাংশ কমানো হবে। উল্লেখ্য, গত সপ্তাহেই মাস্কের মালিকানাধীন স্পেসএক্স (Space X) একদল কর্মচারীকে বরখাস্ত করেছে, যারা জনসমক্ষে ইলন মাস্কের আচরণবিধির সমালোচনা করে একটি খোলা চিঠি লিখেছিলেন।

এলন মাস্ক
৪৪ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি বাতিল করবেন মাস্ক? টেসলা কর্তার নিশানায় ফের টুইটারের সিইও

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in