ভুয়ো অ্যাকাউন্ট আটকাতে অক্ষম সোশ্যাল মিডিয়া

ভুয়ো অ্যাকাউন্ট আটকাতে অক্ষম সোশ্যাল মিডিয়া
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

প্রত্যেক মাসে লাখো ভুয়ো অ্যাকাউন্ট ডিলিট করা হচ্ছে বলে জানায় সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানিগুলো। কিন্তু তার পরেও সোশ্যাল সাইটে বিশেষত তারকা ব্যক্তিত্বর ভুয়ো অ্যাকাউন্টের রমরমা দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। পেনসিলভেনিয়ার এক ২১ বছরের যুবক প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরিবারের সদস্যদের ভুয়ো টুইটার অ্যাকাউন্ট খুলে রেখেছে প্রায় ১ বছরের বেশি সময় ধরে। মূলত ট্রাম্পকে বোকা বানিয়ে এই কাজ করে গিয়েছে ওই যুবক!

উল্লেখ্য, সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভুয়ো অ্যাকাউন্টধারীদের নাম জানতে না-পারার কারণে ভুয়ো অ্যাকাউন্টধারীদের পাকড়াও করা অতটা সহজ নয়। অন্যদিকে, এইসব সোশ্যাল সাইট যারা চালায় তাদের ব্যবসায়িক মুনাফার দিকটিও রয়েছে।

ফেসবুকের তরফে জানানো হয়েছে, বছরের প্রথম ৯ মাসে ৪.৫ বিলিয়ন ভুয়ো অ্যাকাউন্ট ডিলিট করা হয়েছে। যার মধ্যে ৯৯ শতাংশ এমন অ্যাকাউন্ট ছিল যাদের ভুয়ো অ্যাকাউন্ট আগেও ডিলিট করা হয়েছিল! যা হিসেব করলে দেশের প্রায় ৬০ শতাংশ জনসংখ্যার সামিল। সফটওয়্যার প্রোগ্রামের মাধ্যমে এই অ্যাকাউন্টগুলো অটোমেটিকভাবে বা স্বয়ংক্রিয়ভাবে তৈরি হয়ে যায়। যার পোশাকি নাম বটস। এই বটস বছরের পর বছর ব্যবহার করে বেশ কিছু পোস্ট ও টপিকের মাধ্যমে আরও বেশি মানুষের অ্যাকাউন্ট দেখতে পাওয়া যায়।

সম্প্রতি ফেসবুক, টুইটার এবং অন্যান্য তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলো আরও বেশি পরিমাণে বটস ধরতে পারছে। একরকমের সফটওয়্যার ব্যবহার করে এই অ্যাকাউন্টগুলো চিহ্নিত করে সেগুলো ব্লক করা হচ্ছে। এরপরেই সেগুলো ডিলিট করে দেওয়া হচ্ছে। যদিও তার পরেও ফেক অ্যাকাউন্টের রমরমা কমানো যাচ্ছেনা।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in