Earthquake: মধ্যরাতে ৬.৬ মাত্রার কম্পনে কেঁপে উঠলো দিল্লি, উৎসস্থল নেপাল, মৃত ৬

ইউরোপীয়-ভূমধ্যসাগরীয় সিসমোলজিক্যাল সেন্টার (EMSC)-র দাবি কম্পনটির মাত্রা ৬.৬, যদিও ভারতের ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি জানিয়েছে কম্পনটির মাত্রা ৬.৩।
ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো দিল্লি
ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো দিল্লিপ্রতীকী ছবি

মধ্যরাতে ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো দিল্লী ও সংলগ্ন এলাকা। রিখটার স্কেল অনুযায়ী এই কম্পনের মাত্রা ৬.৩। কম্পনের উৎসস্থল নেপালে বলে জানা গেছে। আতঙ্কের জেরে মধ্যরাতে ঘর ছেড়ে রাস্তায় বেরিয়ে আসেন রাজধানীবাসীরা।

রাত ২টা নাগাদ এই শক্তিশালী কম্পনটি অনুভূত হয়। যা প্রায় ১০ সেকেন্ড স্থায়ী ছিল বলে জানান স্থানীয় বাসিন্দারা। দিল্লির পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশ, হরিয়ানার বেশ কিছু এলাকা থেকেও কম্পনটি অনুভূত হয়েছে।

ইউরোপীয়-ভূমধ্যসাগরীয় সিসমোলজিক্যাল সেন্টার (EMSC) জানিয়েছে, কম্পনটি উত্তর প্রদেশের পিলিভিট শহর থেকে প্রায় ১৫৮ কিলোমিটার (৯৮ মাইল) উত্তর-পূর্বে নেপালের মণিপুরে হয়েছে এবং উৎসস্থল মাটি থেকে ১০ ​​কিলোমিটার গভীরে ছিল। EMSC-র দাবি কম্পনটির মাত্রা ৬.৬, যদিও ভারতের ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি জানিয়েছে কম্পনটির মাত্রা ৬.৩।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, এই ভূমিকম্পের ফলে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। নেপালের ডোটি জেলায় একটি বাড়ি ধসে পড়েছে। সেই বাড়ির মধ্যে ছয়জনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। এলাকায় বহু বাড়ির ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আহত হয়েছেন অনেকে। বাকি ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখনও অজানা। তবে একাধিক ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে।

৫ ঘণ্টার ব্যবধানে এটা নেপালে দ্বিতীয় ভূমিকম্প। এর আগে রাত ৮.৫২ মিনিট একবার কেঁপে উঠেছিল নেপাল। তখন এর মাত্রা ছিল ৪.৯।

এছাড়াও বুধবার সকালে ৪.৩ মাত্রার কম্পনের কেঁপে ওঠে উত্তরাখণ্ডের পিথরাগড় এলাকা। সকাল ৬.২৭ মিনিটে এই কম্পন অনুভূত হয়। NCS জানিয়েছে, এই কম্পনের উৎসস্থল মাটি থেকে ৫ কিমি গভীরে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in