জরুরি অবস্থা জারি করা বড় ভুল ছিল: রাহুল গান্ধি

রাহুল বলেন 'বর্তমানে আরএসএস থেকে লোকজন এনে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভরিয়ে তোলা হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানগুলো স্বাধীন ও স্বতন্ত্রভাবে কাজ করে। বর্তমানে আরএসএস সেই স্বাধীনতার উপরই আঘাত হানছে।'
জরুরি অবস্থা জারি করা বড় ভুল ছিল: রাহুল গান্ধি
রাহুল গান্ধি এবং ইন্দিরা গান্ধিছবি সংগৃহীত

জরুরি অবস্থা জারি করা একটি ভুল ছিল। ভারতীয় গণতন্ত্রের ইতিহাসে কাল দাগ হয়ে থাকবে জরুরি অবস্থা। এতদিন একথা বলত বিজেপি। এবার খোদ কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধিই স্বীকার করলেন, তাঁর ঠাকুমা ইন্দিরা গান্ধির নেওয়া সেই সিদ্ধান্ত একেবারেই ঠিক ছিল না।

মঙ্গলবার করনেল বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন রাহুল। কথা বলছিলেন প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ কৌশিক বসুর সঙ্গে। সেই সাক্ষাৎকারে জরুরি অবস্থা প্রসঙ্গে কংগ্রেস নেতা বলেন, ১৯৭৫ থেকে ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত ২১ মাসের জরুরি অবস্থা অবশ্যই ভুল সিদ্ধান্ত ছিল। সেসময় যা যা হয়েছে, তা ভুল। সে নিয়ে মতামত চাইলে রাহুল বলেন, 'আমার মনে হয় ওটা ভুল সিদ্ধান্ত ছিল। এ নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। ঠাকুমা নিজেও তা মেনেছিলেন। কিন্তু কংগ্রেস কখনও দেশের সাংবিধানিক পরিকাঠামোকে নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেনি। সত্যি কথা বলতে কী, কংগ্রেসের সেই ক্ষমতাও নেই। আমাদের দলীয় পরিকাঠামোই তাতে অনুমোদন দেয় না।'

রাহুলের দাবি, জরুরি অবস্থা এবং বর্তমান পরিস্থিতির মধ্যে একটি মৌলিক পার্থক্য রয়েছে। বর্তমানে রাষ্ট্রীয় স্বয়ম সেবক সঙ্ঘ (আরএসএস) থেকে লোকজন এনে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভরিয়ে তোলা হচ্ছে। নির্বাচনে বিজেপি-কে যদি পরাজিতও করে কংগ্রেস, প্রাতিষ্ঠানিক পরিকাঠামো থেকে গেরুয়া শিবিরের লোকজনকে ছেঁটে ফেলার উপায় নেই। রাহুল বলেন, 'প্রাতিষ্ঠানিক ভারসাম্যই আধুনিক গণতন্ত্রের পরিচয়। প্রতিষ্ঠানগুলো স্বাধীন ও স্বতন্ত্রভাবে কাজ করে। বর্তমানে আরএসএস সেই স্বাধীনতার উপরই আঘাত হানছে। সুকৌশলে, নির্দিষ্ট পদ্ধতি অনুসারে গোটা বিষয়টি সম্পাদন করা হচ্ছে। গণতন্ত্রের অবক্ষয় হচ্ছে বলব না, ভারতে গণতন্ত্রের শ্বাসরোধ করা হচ্ছে।'

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in