এবার কি উত্তরবঙ্গে BJP-তে ধস? দলীয় বৈঠকে ৫ MLA-র অনুপস্থিতি ঘিরে শুরু জল্পনা

দলবদলের আবহে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর নেতৃত্বে হওয়া দলীয় বৈঠকে পাঁচ বিধায়কের অনুপস্থিতি ঘিরে জল্পনাই তৈরি হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। যদিও বিজেপির তরফ থেকে এই জল্পনা সরাসরি উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।
এবার কি উত্তরবঙ্গে BJP-তে ধস? দলীয় বৈঠকে ৫ MLA-র অনুপস্থিতি ঘিরে শুরু জল্পনা
প্রতীকী ছবি

দক্ষিণবঙ্গের পর এবার কী উত্তরবঙ্গে বিজেপিতে ধস নামতে চলেছে? দলবদলের আবহে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর নেতৃত্বে হওয়া দলীয় বৈঠকে পাঁচ বিধায়কের অনুপস্থিতি ঘিরে সেই জল্পনাই তৈরি হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। যদিও বিজেপির তরফ থেকে এই জল্পনা সরাসরি উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

বুধবার উত্তরবঙ্গের বিধায়কদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিল বিজেপি। বৈঠকের নেতৃত্বে ছিলেন দার্জিলিংয়ের সাংসদ রাজু বিস্তা, আলিপুরদুয়ারের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জন বার্লা। উত্তরবঙ্গ জোনে বিজেপির মোট ২৯ জন বিধায়ক রয়েছেন। এদিনের বৈঠকে তাঁদের মধ্যে পাঁচজন অনুপস্থিত ছিলেন। এঁরা হলেন - বালুরঘাটের বিধায়ক অশোক লাহিড়ী, মালদহের বিধায়ক গোপালচন্দ্র সাহা, হবিবপুরের বিধায়ক জুয়েল মুর্মু, কুমারগ্রামের বিধায়ক মনোজ ওরাঁও এবং গঙ্গারামপুরের‌ বিধায়ক সত‍্যেন্দ্রনাথ রায়।

গতকালই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন উত্তর ২৪ পরগণার বাগদার বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস। তার‌ আগের দিন বিষ্ণুপুরের বিধায়ক তন্ময় ঘোষ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। এবং এর ‌আগেও একাধিক বিধায়ক গেরুয়া শিবির ছেড়ে ঘাসফুল শিবিরে গিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে পাঁচ বিধায়কের অনুপস্থিতি সেই জল্পনাই উস্কে দিয়েছে।

তবে বিজেপির তরফ থেকে এই সম্ভাবনা হেসে উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বিজেপির মালদহ জেলার সভাপতি গোবিন্দচন্দ্র মন্ডলের কথায়, বিষ্ণুপুর ও বাগদার বিধায়ক তৃণমূল থেকে এসেছিলেন, তাই তাঁরা তৃণমূলে গিয়েছেন। কিন্তু বাকিরা প্রথম থেকেই বিজেপির সাথে জড়িত। তাই তাঁদের নিয়ে অন‍্য কিছু ভাবার কোনো কারণ নেই।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in