WB Election: রাজ্যে ৩ কেন্দ্রে ৫২ কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী, ভবানীপুরে সর্বাধিক
ছবি প্রতীকীফাইল ছবি, দ্য স্ক্রল-এর সৌজন্যে

WB Election: রাজ্যে ৩ কেন্দ্রে ৫২ কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী, ভবানীপুরে সর্বাধিক

সূত্র অনুসারে, ভবানীপুর কেন্দ্রে মোতায়েন করা হবে ১৯ কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী। যা এই তিন কেন্দ্রের মধ্যে সর্বাধিক। বাকি ৩৩ কোম্পানী বাহিনী মোতায়েন হবে জঙ্গীপুর এবং সামসেরগঞ্জে।

রাজ্যে আসন্ন নির্বাচন এবং উপনির্বাচনে ৫২ কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর ভবানীপুর কেন্দ্রে উপনির্বাচন এবং জঙ্গীপুর ও সামসেরগঞ্জ কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। যার মধ্যে ভবানীপুর কেন্দ্রের উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য নির্বাচনী অধিকর্তার দপ্তরের সূত্র অনুসারে, ভবানীপুর কেন্দ্রে মোতায়েন করা হবে ১৯ কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী। যা এই তিন কেন্দ্রের মধ্যে সর্বাধিক। বাকি ৩৩ কোম্পানী বাহিনী মোতায়েন হবে জঙ্গীপুর এবং সামসেরগঞ্জে।

সূত্র অনুসারে তিন কেন্দ্রের জন্য ইতিমধ্যেই রাজ্যে পৌঁছেছে ১৫ কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী। ইতিমধ্যেই ৮ কোম্পানী বাহিনিকে ভবানীপুর কেন্দ্রে এরিয়া ডমিনেশনের কাজে মোতায়েন করা হয়েছে। বাকী ৭ কোম্পানী পাঠানো হয়েছে মুর্শিদাবাদে। ১৫ কোম্পানী বাহিনীর মধ্যে ৭টি বাহিনি সিআরপিএফ-এর, ৪ বাহিনী বিএসএফ-এর এবং এসএসবি-র ২টি বাহিনী আছে। এছাড়াও সিআইএসএফ এবং আইটিবিপি-র ১টি করে বাহিনী আছে।

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর এই তিন কেন্দ্রে ভোট নেওয়া হবে এবং ফলাফল প্রকাশিত হবে আগামী ৩ অক্টোবর। যদিও ভবানীপুর কেন্দ্রের উপনির্বাচন নিয়ে বেশ কিছু বিতর্ক দানা বেঁধেছে। কলকাতা হাইকোর্টে ভবানীপুর উপনির্বাচন প্রসঙ্গে মুখ্যসচিবের তৎপরতা নিয়ে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছে। মুখ্যসচিবের অনুরোধে ভবানীপুর কেন্দ্রের উপনির্বাচনকে ‘স্পেশাল কেস’ বলায় প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলেও।

এছাড়াও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মনোনয়ন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল। তাঁর দাবি মনোনয়ন জমা দেবার সময় তথ্য গোপন করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে তিনি তাঁর নামে থাকা পাঁচটি পুলিশ কেসের উল্লেখ করেননি। ভবানীপুর কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীর চিফ ইলেকশন এজেন্ট সজল ঘোষ এই প্রসঙ্গে ভবানীপুর কেন্দ্রের রিটার্নিং অফিসারকে লিখিত চিঠি দিয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে থাকা এই পাঁচটি কেসের বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে তিনি কমিশনের কাছে আবেদন জানিয়েছেন। সজল ঘোষের চিঠি অনুসারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ধারা ১২০ বি, ধারা ১৫৩এ, ধারা ৩৩৮ অনুসারে আসামের বিভিন্ন পুলিশ থানায় অভিযোগ দায়ের করা আছে। অভিযোগ দায়ের করা আছে গীতা নগর পুলিশ থানা, পানবাজার পুলিশ থানা, জাগি রোড পুলিশ থানা, লখিমপুর পুলিশ থানা এবং উদারবন্দ পুলিশ থানায়। যদিও এখনও পর্যন্ত কমিশন এই বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেনি।

(Except for the headline, this story has not been edited by People's Reporter and is translated and published from a syndicated feed.)

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in