WB: নানুরে CPIM কর্মী খুন, অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

CPIM-এর অভিযোগ, সোমবার সকালে বালিগুনি বাসস্ট্যান্ডে বাদল শেখকে ঘিরে ধরে তৃণমূলী দুষ্কৃতী বাহিনী। তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয় কেন তিনি CPIM-এর পতাকা তুলেছেন। এরপরেই তাঁকে মারধোর করে তৃণমূলী দুষ্কৃতীরা।
WB: নানুরে CPIM কর্মী খুন, অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে
নিহত সিপিআইএম কর্মী বাদল শেখছবি সিপিআইএম ফেসবুক পেজের সৌজন্যে

রবিবার ৭ নভেম্বর, নভেম্বর বিপ্লব বার্ষিকীর দিন দলীয় পতাকা তোলার অপরাধে খুন হতে হল সিপিআইএম কর্মী, পেশায় খেতমজুর বাদল শেখকে। এই ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছে সিপিআই(এম) বীরভূম জেলা কমিটির তরফে। সোমবার সকালে নানুর ব্লকের বালিগুনি গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে।

সিপিআই(এম)-এর অভিযোগ, এদিন সকালে বালিগুনি বাসস্ট্যান্ডে বাদল শেখকে ঘিরে ধরে তৃণমূলী দুষ্কৃতী বাহিনী। তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয় রবিবার কেন তিনি সিপিআইএম-এর পতাকা তুলেছেন। এরপরেই তাঁকে মারধোর করতে শুরু করে তৃণমূলী দুষ্কৃতীরা। আক্রান্ত হন বাদল শেখ-এর সঙ্গে থাকা নিশিকান্ত থান্ডার। অন্য এক সিপিআই(এম) কর্মী শেখ পিটারকেও মারার চেষ্টা করা হয়। এরপর হামলায় গুরুতর জখম বাদল শেখকে ভ্যানে করে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। বাড়ির লোকজন চিকিৎসার জন্য বাদল শেখকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে চাইলে বাধা দেয় স্থানীয় তৃণমূলী দুষ্কৃতীরা।

নিহত বাদল শেখের পরিবারের অভিযোগ, পুলিশকে ফোন করলেও প্রাথমিক অবস্থায় পুলিশ সাড়া দেয়নি। পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে তাঁকে নানুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাঁকে বোলপুর হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। মৃতের স্ত্রী জরিনা বিবি অভিযোগ জানিয়েছেন, তাঁরা সিপিএম করেন বলেই তৃণমূলরা তাঁর স্বামীকে হত্যা করেছে। তিনি জানান, ‘গতকাল পতাকা তুলেছিল বলে ওকে মেরেছে। মারার পর ভ্যানে করে বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছিল। হাসপাতাল নিয়ে যেতে দেয়নি।’’

সিপিআই(এম) রাজ্য কমিটির সদস্য, প্রাক্তন বিধায়ক শ্যামলী প্রধান অবিলম্বে দোষীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন। তৃণমূলী দু্ষ্কৃতীদের এই নৃশংস হামলার বিরুদ্ধে, কমরেড বাদল সেখের মৃত্যুর প্রতিবাদে মঙ্গলবার থেকেই রাজ্যের সর্বত্র প্রতিবাদ সংগঠিত করার আহ্বান জানিয়েছেন পার্টির রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র।

যদিও বাদল শেখকে মারধোর করার কথা অস্বীকার করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। স্থানীয় তৃণমূল বিধায়ক দাবি করেছেন, সিপিআই(এম)-এর দুই গোষ্ঠীর গন্ডগোলে বাদল শেখের মৃত্যু হয়েছে। এর সঙ্গে তৃণমূল যুক্ত নয়।

অন্যদিকে বীরভূমের পুলিশ সুপার নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠী জানিয়েছেন, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে আসার পর মামলা রুজু করা হবে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in