১০ লাখ টাকা খরচ করে জন্মদিন উদযাপন তৃণমূল বিধায়কের

জন্মদিন উপলক্ষ্যে সন্ধ্যায় হয় বিচিত্রানুষ্ঠান। কেবল এই বিচিত্রানুষ্ঠানের জন্য ৫ লাখ টাকা খরচ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। বাংলাদেশের এক জনপ্রিয় অভিনেত্রীও আমন্ত্রিত ছিলেন অনুষ্ঠানে।
বাংলাদেশের অভিনেত্রীর সাথে হুমায়ূন কবির
বাংলাদেশের অভিনেত্রীর সাথে হুমায়ূন কবিরছবি সংগৃহীত

তৃণমুল বিধায়কের জন্মদিনে খরচ হলো ১০ লাখ টাকা! যদিও বাজেট ছিল এর দ্বিগুণ, প্রায় ২০ লাখ টাকা। একদিকে যখন দলীয় নেতাদের ব্যয় সংকোচের বার্তা দিচ্ছেন দলনেত্রী, সেখানে বিধায়ক তাঁর জন্মদিনে ১০ লাখ টাকা খরচ করছে! যা দেখে বিস্মিত অনেকেই।

মঙ্গলবার ছিল মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের বিধায়ক হুমায়ুন কবিরের জন্মদিন। এই জন্মদিন উদযাপনের জন্য ১০ লাখ টাকা খরচ করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ভরতপুরের সালারের ডাকবাংলোর মাঠে বিধায়কের জন্মদিন উপলক্ষ্যে কয়েক হাজার মানুষের খাওয়া দাওয়ার আয়োজন করা হয়। বিকেলে ফের একদফা খাওয়া দাওয়ার আয়োজন এবং সাথে কাটা হয় ৬০ পাউন্ড ওজনের একটি কেক। কারণ বিধায়ক কবিরের এবার ৬০ বছর পূর্ণ হলো। সন্ধ্যায় হয় বিচিত্রানুষ্ঠান। কেবল এই বিচিত্রানুষ্ঠানের জন্য ৫ লাখ টাকা খরচ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। বাংলাদেশের এক জনপ্রিয় অভিনেত্রীও আমন্ত্রিত ছিলেন অনুষ্ঠানে।

এই বিপুল আয়োজনের খরচ কত? বিধায়ক নিজেই জানালেন, "সব মিলিয়ে খরচ হয়েছে ১০ লাখ টাকা।" তাঁর কথায় এবছর তিনি অনেক ব্যয় সংকোচন করেছেন। আগে ১০ হাজার লোক খাওয়াতেন তিনি, এবছর সেখানে মাত্র ৪ হাজার জনকে খাওয়ানো হয়েছে। কারণ একদিন আগে সোমবারই কলকাতার নজরুল মঞ্চে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের নেতাদের লোভ সংবরণ, ব্যয় সংকোচের বার্তা দিয়েছেন।

কিন্তু তাই বলে ১০ লাখ টাকা খরচ করে জন্মদিন উদযাপন! এই প্রসঙ্গে বিধায়ক হুমায়ুন কবির জানিয়েছেন, "আমি প্রোমোটারির ব্যবসা করি। জমি কেনা বেচার ব্যবসাও করি। সেই টাকা দিয়ে নিজের জন্মদিন পালন করছি তাতে অসুবিধা কোথায়?"

এই জন্মদিন উদযাপনে সমানভাবে অংশ নিয়েছেন শাসকদলের কর্মীরা। তাঁরা এই বিপুল খরচে কোনও খারাপ কিছু দেখছেন না। ভরতপুর ২ ব্লক যুব তৃণমূলের সভাপতি আশরাফ শেখ বলেন, বিধায়ক সারা বছর অন্যের ভালো-মন্দের কথা চিন্তা করেন। সেখানে তাঁর জন্মদিন পালন করা হবে না, সেটা আবার হয় নাকি! আমরা তৃণমূল সদস্যরা মিলে তিন লাখ টাকা চাঁদা তুলেছি এর জন্য। বাকি টাকা বিধায়ক নিজে দিয়েছেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in