ICDS-এ চাকরি দেওয়ার নামে ২.৫ লক্ষ করে টাকা নেওয়ার অভিযোগ তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে

প্রতারিত মহিলাদের মধ্যে একজন বলেন, প্রায় তিন বছর আগে ঐ নেতা প্রত্যেকের থেকে আড়াই লাখ টাকা নেন। টাকা নেওয়ার এক বছরপর নিয়োগপত্রও দেওয়া হয়। কিন্তু তা কার্যত অবৈধ বলে জানিয়ে দেন আধিকারিকেরা।
ICDS-এ চাকরি দেওয়ার নামে ২.৫ লক্ষ করে টাকা নেওয়ার অভিযোগ তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে
আব্দুর রহিম বক্সিগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী নিয়োগে প্রতারণার অভিযোগ উঠল তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে। টাকার বিনিময়ে কয়েকজন মহিলাকে তিনি চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। যদিও তিনি এই অভিযোগকে মিথ্যা বলে দাবি করেছেন।

রাজ্যে একেরপর এক দুর্নীতিতে জর্জরিত শাসকদলের নেতামন্ত্রীরা। এবার সেইখাতায় নাম লেখালেন মালদহের তৃণমূল বিধায়ক আব্দুর রহিম বক্সি। তাঁর বিরুদ্ধে পাঁচ থেকে ছয়জন মহিলা প্রতারণার অভিযোগ তোলেন। মহিলাদের অভিযোগ, বিধায়ক তাঁদের কাছে থেকে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে টাকা নিয়েছেন। কিন্তু পরবর্তীকালে সেই চাকরি দেননি। তাঁরা বিষয়টি জেলার মহকুমা শসকের কাছে লিখিত ভাবে জানান। পাশাপাশি তাঁরা জানান, তাঁদেরকে নিয়োগপত্র দেওয়া হয়।

চাকরি না পেয়ে তাঁরা তৃণমূল নেতার কাছে টাকা ফেরত চাইতে যান। কিন্তু সেই টাকাও তাঁরা ফেরত পাননি। প্রতারিত মহিলাদের মধ্যে একজন বলেন, প্রায় তিন বছর আগে ঐ নেতা প্রত্যেকের থেকে আড়াই লাখ টাকা নেন। টাকা নেওয়ার এক বছর পর নিয়োগপত্রও দেওয়া হয়। কিন্তু তা কার্যত অবৈধ বলে জানিয়ে দেন আধিকারিকেরা।

যদিও এই বিষয়টি অস্বীকার করেছেন তৃণমূল বিধায়ক। তাঁর বক্তব্য, তিনি মহিলাদের চেনেন না। তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। যদিও প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এই ধরণের অভিযোগ এসেছে। তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অপরাধ প্রমাণ হলে দোষীরা অবশ্যই শাস্তি পাবে।

আব্দুর রহিম বক্সি
চাকরিপ্রার্থীদের টেনেহিঁচড়ে ধর্না মঞ্চ থেকে সরিয়ে দিল পুলিশ - ফিরবোই, হুঁশিয়ারি আন্দোলনকারীদের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in