আদিবাসী মহিলাকে ধর্ষণ ও খুন! ক্ষোভে ফুঁসছে দক্ষিণ দিনাজপুরের কুমারগঞ্জ

গ্রামবাসীরা মধ্যরাতে বাড়ি থেকে কিছুদূরে দাউদপুর বিএসএফ ক্যাম্পের ঠিক পেছনের জঙ্গলে আদিবাসী মহিলার অর্ধনগ্ন দেহ দেখতে পায়। এরপরই তারা কুমারগঞ্জ থানাতে খবর দেয়।
আদিবাসী মহিলাকে ধর্ষণ ও খুন! ক্ষোভে  ফুঁসছে দক্ষিণ দিনাজপুরের কুমারগঞ্জ
প্রতীকী ছবিছবি সংগৃহীত

রাজ্যে আবার ধর্ষণের পর খুন হতে হল এক আদিবাসী মহিলাকে। এমন তথ্যই উঠে আসছে পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের কুমারগঞ্জ এলাকাতে। যা নিয়ে এলাকার মানুষ ক্ষোভে ফুঁসছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বুধবার দুপুর থেকে ওই মহিলা নিখোঁজ ছিলেন। চারিদিকে খোঁজ করেও তার সন্ধান মেলেনি। গ্রামবাসীরা মধ্যরাতে বাড়ি থেকে কিছু দূরে দাউদপুর বিএসএফ ক্যাম্পের ঠিক পেছনের জঙ্গলে আদিবাসী মহিলার অর্ধনগ্ন দেহ দেখতে পান। এরপরই তারা কুমারগঞ্জ থানাতে খবর দেন।

খবর পেয়ে পুলিশ আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ঐ মহিলার দেহ উদ্ধার করে। পুলিশ সূত্রে খবর, সম্ভবত ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে আদিবাসী মহিলাকে। দেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে বলেও জানা গেছে। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান, প্রমাণ লোপাট করার জন্যই হয়তো খুন করা হয়েছে।

পরিবারের লোক জানায় - বুধবার হাটে যায় ঐ মহিলা। কিন্তু তারপর আর বাড়ি ফেরেনি। তারপর এই অর্ধনগ্ন দেহ উদ্ধার হয় তার। মৃত মহিলার শরীরে একাধিক ক্ষতচিহ্ন মিলেছে বলে গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন। তাদের দাবি, এটা কখনই আত্মহত্যা হতে পারে না। আত্মহত্যা করার হলে বাড়ি থেকে এত দূরে গিয়ে কেন আত্মহত্যা করবে? ইতিমধ্যে কুমারগঞ্জ থানা এই ঘটনায় ৩০২, ২০১ ও ৩৪ ধারায় মামলা করেছে। পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, আব্দুল হাসান নামে একজন গ্রেপ্তারও হয়েছে।

প্রতীকী ছবি
যৌনকর্মীর না বলার অধিকার আছে, বিবাহিত মহিলার নেই - বৈবাহিক ধর্ষণ মামলায় দ্বিমত হাইকোর্টে

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.