কুচবিহারে আগামী ৭২ ঘণ্টা কোনো রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের

আগামী ৭২ ঘণ্টার জন্য কুচবিহার জেলায় যে কোনো রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বের প্রবেশে নিয়ন্ত্রণ আনলো কমিশন। কমিশনের নির্দেশ অনুযায়ী আগামী ৭২ ঘণ্টা কুচবিহার জেলায় কোনো রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব প্রবেশ করতে পারবেন না
কুচবিহারে আগামী ৭২ ঘণ্টা কোনো রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের
ছবি প্রতীকী, ট্যুইটার থেকে সংগৃহীত

আগামী ৭২ ঘণ্টার জন্য কুচবিহার জেলায় যে কোনো রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বের প্রবেশে নিয়ন্ত্রণ আনলো নির্বাচন কমিশন। কমিশনের এদিনের নির্দেশ অনুযায়ী আগামী ৭২ ঘণ্টা কুচবিহার জেলায় কোনো রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব প্রবেশ করতে পারবেন না। এদিনই রাজ্যে চতুর্থ দফার ভোট চলাকালীন নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে দুই জায়গায় মোট ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তবে নির্বাচন কমিশন এই নির্দেশ দিলেও তৃণমূল সুপ্রীমো মমতা ব্যানার্জি আগামীকাল মাথাভাঙ্গা যাবার কথা আগেই জানিয়েছিলেন। মৃতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করার পাশাপাশি আহতদের হাসপাতালে দেখতে যাবেন বলেও তিনি জানিয়েছিলেন। যদিও কমিশনের এই নির্দেশের পর তাঁর আগামীকালের কর্মসূচি কী হবে তা এখনও পর্যন্ত স্পষ্ট নয়।

এদিনের গুলিচালনা প্রসঙ্গে কমিশন সূত্রে জানা গেছে এক ভুল বোঝাবুঝিকে কেন্দ্র করে এই গণ্ডগোলের সূত্রপাত। যে ভুল বোঝাবুঝির কারণে নিরাপত্তারক্ষীদের প্রায় শ তিনেক গ্রামবাসী ঘিরে ধরে। এরপরেই নিরাপত্তা বাহিনি গুলি চালায়। এই ঘটনার পরেই শীতলখুচির ওই বুথে ভোট গ্রহণ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

যদিও তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জির বক্তব্য অনুসারে এই ঘটনা সম্পূর্ণ পরিকল্পনা মাফিক। তিনি এই ঘটনার জন্য সম্পূর্ণ ভাবে কেন্দ্রীয় বাহিনিকে দায়ি করেছেন এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহর পদত্যাগ দাবি করেছেন। তিনি আরও জানিয়েছেন রাজ্য পুলিশের সিআইডি এই ঘটনার তদন্ত করবে।

শনিবার রাজ্যে চতুর্থ দফার ভোটে পাঁচ জেলার মোট ৪৪ আসনের জন্য ভোট নেওয়া হয়। যার মধ্যে ছিলো দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলী, আলিপুরদুয়ার এবং কুচবিহার।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in