বেনোজলদের নিশানা! জলে-দুধে মিশে যাওয়ার উপমা দিয়ে ফেসবুকে পোস্ট অভিমানী সৌমিত্র খাঁয়ের

সৌমিত্র খাঁয়ের একের পর এক পদক্ষেপে অস্বস্তি বাড়ছে বিজেপির অন্দরে। এবার কাকে নিশানা করলেন তিনি, তা নিয়ে জল্পনা গেরুয়া শিবিরেও।
বেনোজলদের নিশানা! জলে-দুধে মিশে যাওয়ার উপমা দিয়ে ফেসবুকে পোস্ট অভিমানী সৌমিত্র খাঁয়ের
বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁফাইল ছবি সংগৃহীত

ফের বিস্ফোরক বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। এবার সরাসরি কারও নাম করে বিদ্রুপ না করলেও উপমা দিয়ে ফেসবুকে দীর্ঘ পোস্ট করেছেন। তবে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ না বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে তিনি ইঙ্গিত করেছেন, তা স্পষ্ট হয়নি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লিখেছেন, 'জল দুধের সাথে বন্ধুত্ব করল এবং নিজের স্বরূপ ত্যাগ করে দুধের সঙ্গে মিশে গেল। এই দেখে দুধ জলকে বলল, তুমি যেভাবে শুধু বন্ধুত্বের কারণে নিজের স্বরূপ ত্যাগ করে আমার সঙ্গে মিশে গেলে, আমিও আমাদের বন্ধুত্ব পালন করব, আজ থেকে তুমিও আমার দামেই বিক্রি হবে।’

এই পোস্ট ঘিরেই সরগরম রাজ্য রাজনীতি। সৌমিত্র খাঁয়ের একের পর এক পদক্ষেপে অস্বস্তি বাড়ছে বিজেপির অন্দরে। এবার কাকে নিশানা করলেন তিনি, তা নিয়ে জল্পনা গেরুয়া শিবিরেও। এই পোস্টের মাধ্যমে প্রকৃত বিজেপি ও বেনোজলদের ফারাক বোঝানোর চেষ্টা করছেন বিজেপি সাংসদ। এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ
বাবুল সুপ্রিয়র পর সৌমিত্র খাঁয়ের উপর বেজায় চটেছেন দিলীপ - ‘জোকার’, ‘অর্বাচীন’ বলে কটাক্ষ

সৌমিত্র খাঁ আরও লিখেছেন, ‘দুধকে যখন ফোটানো হয়, তখন জল বলে, এবার আমার বন্ধুত্ব পালন করার পালা, তাই তোমার থেকে আগে আমি মৃত্যু বরণ করব! তাই জল আগেই শেষ হয়ে যায়! যখন দুধ তার বন্ধু জলকে এভাবে মৃত্যু বরণ করতে দেখে, তখন দুধ উথলে উঠে আগুনকে নেভানোর চেষ্টা করে, কিন্তু যখন কিছু জলের ফোঁটা ছিটিয়ে তার বন্ধুকে উথলানো দুধের সাথে মিলিয়ে দেওয়া হয়, তখন দুধ আবার শান্ত হয়ে যায়! কিন্তু ……এক ফোঁটা অম্ল সেই জল এবং দুধের নিবিড় বন্ধুত্বকে আলাদা করে দিতে পারে!’

এর আগেও দল পরিচালনায় দিলীপ ঘোষ নিরপেক্ষ নন বলে অভিযোগ করেছিলেন সৌমিত্র। শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে ফেসবুক পোস্টে অভিযোগ করেছিলেন, ‘বিজেপিতে নিজেকে জাহির করতে চাইছেন শুভেন্দু।' বিরোধী দলনেতা এব্যাপারে মুখ না খুললেও সৌমিত্রকে পাল্টা নিশানা করেন দিলীপ ঘোষ। তিনি স্পষ্ট জানান, ‘নতুনরা দলকে এখনও বুঝে উঠতে পারেননি, তাঁদের সমস্যা হচ্ছে।’

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in