Rampurhat Massacre: রামপুরহাট কাণ্ডে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি অরুণ মিশ্র জানান, শীঘ্রই এলাকা পরিদর্শন করতে যাবেন মানবাধিকার কমিশনের প্রতিনিধিরা। এলাকা ঘুরে দেখবেন।
Rampurhat Massacre: রামপুরহাট কাণ্ডে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু
ছবি - সংগৃহীত

কলকাতা হাইকোর্টের পর জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। রামপুরহাটের বগটুই গণহত্যাকাণ্ডে ফের স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে মামলা রুজু হল। এই অগ্নিকাণ্ডের মাধ্যমে গণহত্যার ঘটনায় আগেই কলকাতা হাইকোর্ট স্বতঃপ্রণোদিত মামলা করেছিল। তারপরেই স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা রুজু করেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন।

বগটুইয়ে নৃশংসভাবে প্রথমে নিহতদের কোপানো হয়েছে। তারপর পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। এমনই অভিযোগ নিহতদের আত্মীয়দের। এই নৃশংসতার হাত থেকে বাদ যায়নি শিশুরাও। এখনও আতঙ্কিত গ্রামবাসীরা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বৃহস্পতিবার এলাকায় গিয়ে নিহতদের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন। তাঁরই নির্দেশে রামপুরহাটের ব্লক সভাপতি আনারুল হোসেনকে তারাপীঠ থেকে গ্রেফতার করা হয়।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি অরুণ মিশ্র জানান, শীঘ্রই এলাকা পরিদর্শন করতে যাবেন মানবাধিকার কমিশনের প্রতিনিধিরা। এলাকা ঘুরে দেখবেন। স্থানীয় ও পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গেও কথা বলবেন প্রতিনিধিরা।

এই গণহত্যার পরেই তৎপর হয়ে উঠেছে জাতীয় শিশু সুরক্ষা কমিশন, জাতীয় মহিলা কমিশনও। জেলা পুলিশের কাছে রিপোর্ট চেযয়েছে জাতীয় শিশু সুরক্ষা কমিশন। মামলাকারীদের বক্তব্য ছিল, মামলাটি বিচারাধীন। তাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষতিপূরণ দিতে পারেন না। তাদের প্রভাবিত করা হচ্ছে।

Rampurhat Massacre: রামপুরহাট কাণ্ডে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু
Rampurhat Massacre: রাজমিস্ত্রির জোগাড়ে থেকে ব্লক সভাপতি, আনারুলের 'উত্থান' চোখে পড়ার মতোই

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.