৭ বছরেও মেলেনি চাকরি, শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর বাড়ির সামনে বিক্ষোভ, আটক ১৭ জন চাকরিপ্রার্থী

স্মারকলিপি জমা দিতে গেলে তখনই মন্ত্রীর বাড়ির সামনের নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁদের হটিয়ে দেয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। নামানো হয় র‍্যাফ।
৭ বছরেও মেলেনি চাকরি, শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর বাড়ির সামনে বিক্ষোভ, আটক ১৭ জন চাকরিপ্রার্থী
- সংগৃহীত

২০১৪ থেকে ২০২১- টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর ৭ বছরেও মেলেনি চাকরি। আদৌ কবে মিলবে, তা কেউ জানে না। অনেক বিক্ষোভ, মিছিল, প্রতিবাদ করলেও সমাধানসূত্র মেলেনি। এবার রাজ্য শিক্ষা দফতরের প্রতিমন্ত্রীর দ্বারস্থ হলেন তাঁরা। সোমবার সকালে মেখলিগঞ্জে পরেশচন্দ্র অধিকারীর বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখিয়ে চাকরিপ্রার্থীরা ডেপুটেশন দিতে যান। বিক্ষোভের ঘটনায় ১৭ জনকে গ্রেফতারও করেছে পুলিশ।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, কয়েকদিন আগে তাঁরা মন্ত্রী পরেশচন্দ্রের বাড়িতে ডেপুটেশন দিতে আসেন। কিন্তু তখন বলা হয় তিনি বাড়ি নেই। সোমবার মন্ত্রী বাড়িতে রয়েছেন জেনেই ফের তাঁরা জমায়েত করেন। স্মারকলিপি জমা দিতে গেলে তখনই মন্ত্রীর বাড়ির সামনের নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁদের হটিয়ে দেয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। নামানো হয় র‍্যাফ।

বিক্ষোভকারীদের কথায়, ২০২০ সালে মুখ্যমন্ত্রী নবান্ন থেকে ঘোষণা করেছিলেন, ২০১৪ সালের কুড়ি হাজার টেট পাশ প্রার্থীকে প্রথমে ১৬,৫০০ জন এবং পরে বাকিদের দফায় দফায় নিয়োগ করবে রাজ্য সরকার। এখনও পর্যন্ত নিয়োগ হয়েছে ১২,৫০০ জন। বাকিদের নিয়োগ করা হচ্ছে না।

এক আন্দোলনকারীর কথায়, আমরা মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলব বলে অপেক্ষা করছি। শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশ আচমকা হামলা চালায়। র‍্যাফ নামানো হয়। কোন চাকরি প্রার্থীদের মিছিলে এমনভাবে র‍্যাফ নামিয়ে আন্দোলন থামাতে হয়! এ কোন রাজ্যে বাস করছি আমরা।' তাঁর অভিযোগ, আমরা আমাদের দাবি, অধিকার নিয়ে কথা বলতে এসেছি। মন্ত্রী বাড়িতে থেকেও দেখা করলেন না। পাল্টা পুলিশ পাঠালেন।

মেখলিগঞ্জ থানার পুলিশ জানিয়েছে, করোনা পরিস্থিতিতে জমায়েত, করোনা বিধি ভেঙে মিছিলের অভিযোগে মহামারী আইনে ১৭ জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in