বাবা-মা করোনা আক্রান্ত, দাদু চিরনিদ্রায়, খুদে রেড ভলান্টিয়ারের তাড়াতাড়ি সুস্থ হওয়ার বার্তা

স্কেচ পেন নিয়ে করোনা আক্রান্তদের জন্য তৈরি খাবারের প্যাকেটে লিখে দিচ্ছে, ‘গেট ওয়েল সুন’, তাড়াতাড়ি সুস্থ হও
বাবা-মা করোনা আক্রান্ত, দাদু চিরনিদ্রায়, খুদে রেড ভলান্টিয়ারের তাড়াতাড়ি সুস্থ হওয়ার বার্তা
ব্যস্ত গোলু ছবি- সোশ্যাল মিডিয়া

একসঙ্গে বসে আর কোনওদিন গোগ্রাসে তাদের মিষ্টি খাওয়া হবে না। মানাবাড়ি থেকে ফিরে এসে আর দেখা হবে না প্রিয় দাদুভাইয়ের সঙ্গে। পাঁচ বছরের খুদে একজন রেড ভলান্টিয়ার হয়ে নিজের বয়সোচিত ক্ষমতা অনুযায়ী সাহায্য করে চলেছে অক্লান্তভাবে। কিন্তু সে জানে না তার প্রিয় দাদুভাই চিরনিদ্রায় গিয়েছেন। বাড়ি ফিরে আর দেখা হবে না। দিনের বেশিরভাগ সময় কাটানো হবে না দাদুর সঙ্গে।

সেই খুদের নাম গোলু ওরফে সুহাসিনী মজুমদার। বাড়ি বর্ধমান। শনিবার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান দাদু। বাড়িতে বাবা-মাও করোনা আক্রান্ত হয়ে লড়াই করছেন। তাকে সাবধানে রাখতে নিয়ে আসা হয়েছে মামাবাড়ি বোলপুরে। মামা ঋষভ মুখার্জি দিনরাত লড়াই করছেন রেড ভলান্টিয়ার্সের হয়ে। মামাবাড়িতে গোলু কি করছে? মামাবাড়িতেই হচ্ছে রান্নাবান্না। দিদিমার সকাল থেকে রান্নার কাজে ব্যস্ত। সেও চায় কিছু করতে। কিন্তু কী করবে? মামার দিনভর ছোটাছুটি আর দিদিমার ব্যস্ততা দেখে নিজের কাজ নিজেই খুঁজে নিয়েছে। নিজেই স্কেচ পেন নিয়ে করোনা আক্রান্তদের জন্য তৈরি খাবারের প্যাকেটে লিখে দিচ্ছে, ‘গেট ওয়েল সুন’, তাড়াতাড়ি সুস্থ হও।

পাশাপাশি মামা ও দিদিমাকেও সাহায্য করছে। দিদিমার ফরমান মতো হাতের কাছে এটা সেটা বাড়িয়ে দেওয়া থেকে শুরু করে খাবারের প্যাকেটে গার্ডার বাঁধা, মামার গাড়িতে পৌছে দেওয়া—তার রোজকার রুটিন। এককথায় পাঁচ বছরের গোলু ওরফে সুহাসিনী মজুমদার এখন ‘রেড ভলান্টিয়ার’। দাদু শিবরাম মজুমদার ছিলেন গোলু দিদিভাই অন্তপ্রাণ। দিনকয়েক আগেই গোলু আসে মামাবাড়ি। তারপরই দাদু আক্রান্ত হন। আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন। গত শনিবার মারা যান। গোলুর বাবা সুনাসির মজুমদার ও মা সোহিনী মজুমদারও করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে চিকিৎসাধীন।

ছোট্ট গোলুর একটাই প্রশ্ন, বাবা-মা আসেনি কেন? দাদুভাই কোথায়? কি করছে? খুদেকে দেওয়ার মতো কোনও জবাব নেই কারও কাছে। জবাব না দিলেও থেমে নেই গোলু। তার যে অনেক কাজ। তার গেট ওয়েল সুন বার্তায় সুস্থ হচ্ছেন একের পর এক করোনা আক্রান্ত। বোলপুরের রেড ভলান্টিয়ার চিরঞ্জীব সেন জানিয়েছেন, ‘গোলু তো আমাদের রেড ভলান্টিয়ারেরই অংশ হয়ে উঠেছে। ওর হাতে লেখা বার্তা আমাদেরও তো উদ্যম জোগাচ্ছে।’

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in