নুসরতের 'সন্ধান চেয়ে' পোস্টার তৃণমূল কর্মীদের - সাংসদকে প্রয়োজনে পাওয়া যায়না স্বীকার নেতাদের

পোস্টারগুলিতে দেখা যায় সাংসদের ছবি দিয়ে লেখা আছে ‘সন্ধান চাই’, ‘প্রতারিত জনগণ’। গ্রামবাসীদের দাবি ভোটের পর থেকে নুসরতকে সেইভাবে তারা পাশে পায়নি। সেই কারণেই দলের কর্মীরা এমন কাজ করেছে।
নুসরতের 'সন্ধান চেয়ে' পোস্টার তৃণমূল কর্মীদের - সাংসদকে প্রয়োজনে পাওয়া যায়না স্বীকার নেতাদের
নুসরত জাহানের বিরুদ্ধে নিখোঁজ পোস্টারছবি সংগৃহীত

তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহানের বিরুদ্ধে নিখোঁজ পোস্টার পড়ল বসিরহাটের চাঁপাতলা এলাকায়। নিজের দলের কর্মীরাই এই পোস্টার লাগিয়েছেন। পোস্টারের নিচেই সে কথা লেখা রয়েছে - ' প্রচারে তৃণমূল'।

এদিন সকালে বসিরহাট লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত চাঁপাতলা এলাকায় তৃণমূলের অভিনেত্রী সাংসদের বিরুদ্ধে একাধিক নিখোঁজ পোস্টার চোখে পড়ে মানুষের। পোস্টারগুলিতে সাংসদের ছবি দিয়ে লেখা আছে ‘MP নুসরত জাহান নিখোঁজ, সন্ধান চাই’। পোস্টারের নীচে কোথাও লেখা, ‘প্রতারিত জনগণ’, আবার কোথাও লেখা ‘প্রচারে তৃণমূল কর্মীবৃন্দ’।

স্থানীয় তৃণমূল নেতারা এই কার্যকলাপকে সমর্থন না করলেও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নুসরতের বিরুদ্ধে। নেতাদের একাংশ জানিয়েছেন, মানুষের প্রয়োজনে নুসরতকে পাওয়া যায়না। তবে দলের কর্মীদের ঐসব পোস্টার সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেন তাঁরা।

সাধারণ মানুষও ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন সাংসদের বিরুদ্ধে। ভোটের পর আর এলাকায় তাঁকে দেখা যায়নি বলে অভিযোগ তাঁদের। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই বিষয় নিয়ে নুসরত জাহানের কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি এখনও।

এই প্রসঙ্গে উত্তর ২৪ পরগণার সিপিআইএমের জেলা কমিটির নবনির্বাচিত সদস্য সপ্তর্ষি দেব পিপলস্ রিপোর্টারের প্রতিনিধিকে জানান, “নুসরত জাহান এমপি হওয়ার পর থেকে বসিরহাটে খুবই কম গেছে। আমফানে বসিরহাট যখন একেবারে বিধ্বস্ত হল তখনও তাঁকে সেইভাবে পাওয়া যায়নি। সুতরাং তিনি সত্যি সত্যি নিখোঁজ না আক্ষরিক অর্থে নিখোঁজ সেটা দেখার বিষয়। তবে বসিরহাটের সাধারণ মানুষের জন্য নুসরত যবে থেকে এমপি হয়েছেন তবে থেকেই নিখোঁজ। মানুষের সুখে দুঃখে আমফানে বিপদে তাঁকে কাছে পাওয়া যায়নি তাই সেই অর্থে তিনি নিখোঁজ"।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in