'মন-প্রাণ তৃণমূল কংগ্রেসেই পড়েছিল' - তৃণমূলে যোগ দিলেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি বিধায়ক

২০২০ সালে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন সৌমেন রায়। এরপর একুশের ভোটে বিজেপির টিকিটে জিতে বিধায়ক হন।
'মন-প্রাণ তৃণমূল কংগ্রেসেই পড়েছিল' - তৃণমূলে যোগ দিলেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি বিধায়ক
সাংবাদিক সম্মেলনে সৌমেন রায় ও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ছবি - তৃণমূল কংগ্রেস ফেসবুক পেজ

বিজেপি ছেড়ে এবার তৃণমূলে যোগ দিলেন কালিয়াগঞ্জের বিধায়ক সৌমেন রায়। শনিবার কলকাতার তৃণমূল ভবনে দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়ের হাত থেকে তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে নিলেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি বিধায়ক।

তৃণমূলে যোগ দিয়ে তিনি বললেন - “ঘটনাচক্রে আমি বিজেপি টিকিটে কালিয়াগঞ্জ থেকে নির্বাচনে লড়ি, কিন্তু আমার মন-প্রাণ তৃণমূল কংগ্রেসেই পড়েছিল। তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে রাজ্যের উন্নয়নযজ্ঞে শামিল হতেই ফিরে আসা।"

২০২০ সালে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন সৌমেন। এরপর একুশের ভোটে বিজেপির টিকিটে জিতে বিধায়ক হন। কিন্তু তাঁকে দলে নেওয়ায় কালিগঞ্জে ব্যপক বিক্ষোভ হয় বিজেপির অন্দরে। রীতিমতো রাস্তায় নেমে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন স্থানীয় বিজেপি নেতা-কর্মীরা। তবুও ভোটে জেতেন সৌমেন রায়।

কিন্তু অভিযোগ, জেতার পর থেকেই বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিলেন না তিনি। এবার সরাসরি তৃণমূলে যোগ দিলেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি বিধায়ক। এক সপ্তাহের মধ্যেই তিন বিজেপি বিধায়ক যোগ দিলেন শাসক শিবিরে। যা বড় আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে বঙ্গ বিজেপির অন্দরে।

এর আগে তৃণমূলের অন্যতম মুখপাত্র তথা রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ একাধিকবার দাবি করেছেন, বহু বিজেপি বিধায়ক যোগাযোগ করছেন তৃণমূলে ফিরতে চেয়ে। তখনই বোঝা যাচ্ছিল বিজেপিতে ভাঙন সময়ের অপেক্ষা।

প্রথমে মুকুল রায় ফিরলেন পুরোনো দলে। এরপর বিষ্ণুপুরের বিজেপি বিধায়ক তন্ময় ঘোষ, বাগদার বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস এবং শনিবার এলেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি বিধায়ক সৌমেন রায়।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in