আবেদন পদ্ধতিতে ত্রুটি! হাইকোর্টের পর সুপ্রিম কোর্টেও ধাক্কা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের

এসএসসি দুর্নীতি মামলায় হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যান রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী। এবার সেখানেও আবেদন পদ্ধতির ত্রুটি থাকার জন্য তাঁর দ্রুত শুনানির আবেদন কার্যত বাতিল করা হয়।
আবেদন পদ্ধতিতে ত্রুটি! হাইকোর্টের পর  সুপ্রিম কোর্টেও ধাক্কা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের
পার্থ চট্টোপাধ্যায়ফাইল ছবি- সংগৃহীত

এসএসসি দুর্নীতি মামলায় হাইকোর্টের পর ফের সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাঁর করা আবেদন পদ্ধতিতে বেশ কিছু ত্রুটি থাকায় শুনানির সিদ্ধান্ত খারিজ করা হয়।

এসএসসি দুর্নীতি মামলায় হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যান রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী। এবার সেখানেও আবেদন পদ্ধতির ত্রুটি থাকার জন্য তাঁর দ্রুত শুনানির আবেদন কার্যত বাতিল করা হয়।

সূত্রের খবর, মন্ত্রীর পক্ষ থেকে ত্রুটিহীন আবেদন করলে সুপ্রিম কোর্টের গ্রীষ্মাবকাশকালীন বেঞ্চে তার শুনানি হলেও হতে পারে। এর আগে এসএসসি দুর্নীতি মামলায় হাইকোর্টের কাছে আবেদন করলে তা খারিজ করে দেয় ডিভিশন বেঞ্চ। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করেই দেশের সর্বোচ্চ আদালতে ধাক্কা খেতে হল পার্থকে।

উল্লেখ্য, গত ১৩ এপ্রিল হাইকোর্ট রায় দেয় পার্থকে সিবিআই দফতরে হাজিরা দিতে হবে। পরে সেই রায়ের ওপর স্থগিতাদেশ আসে চার সপ্তাহের জন্য। সিঙ্গল বেঞ্চের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে তিনি বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডনের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। কিন্তু ডিভিশন বেঞ্চেও ধাক্কা খেতে হয় তাঁকে।

এরইমধ্যে উঠে এলো প্রাক্তন SSC চেয়ারম্যান মারফত বেশকিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য। ২০১১-র জুন মাস থেকে ২০১৩-র অক্টোবর মাস পর্যন্ত SSC-র চেয়ারম্যান ছিলেন তিনি। তাঁর বক্তব্য অনুযায়ী, নিয়োগে দুর্নীতির বিষয়ে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে ফোন বা হোয়াটসঅ্যাপ করলেও মন্ত্রীর তরফে কোনোরকম প্রতিক্রিয়া মেলেনি। প্রসঙ্গত, তখন তৃণমূলের মহাসচিব ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়

পার্থ চট্টোপাধ্যায়
TMC: পার্থ চট্ট্যোপাধ্যায়ের নাম করে লক্ষাধিক টাকা তছরুপ, ফেরার তৃণমূল নেতা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in