BJP: দলের সমস্ত WhatsApp গ্রুপ ছাড়লেন শান্তনু ঠাকুর, তৃণমূলের পথে বিক্ষুব্ধ মতুয়া নেতারা!

এর আগে, বিজেপির নতুন রাজ‍্য কমিটিতে মতুয়া সম্প্রদায়ের কোনো প্রতিনিধি নেই অভিযোগ করে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে বেরিয়ে গিয়েছিলেন পাঁচ বিধায়ক।
BJP: দলের সমস্ত WhatsApp গ্রুপ ছাড়লেন শান্তনু ঠাকুর, তৃণমূলের পথে বিক্ষুব্ধ মতুয়া নেতারা!
শান্তনু ঠাকুরফাইল চিত্র - সংগৃহীত

সম্প্রতি বিজেপির নতুন রাজ‍্য কমিটি ঘোষণা হয়েছে। আর তারপর থেকেই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়ার হিড়িক উঠেছে বঙ্গ বিজেপিতে। রাজ‍্য কমিটিতে পদ খুইয়ে আগেই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়েছিলেন সায়ন্তন বসু এবং বিশ্বপ্রিয় চৌধুরী। তারপর হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে বেরিয়ে গিয়েছেন ‌পাঁচ বিধায়ক। এঁরা প্রত‍্যেকেই মতুয়া সম্প্রদায়ের। তাঁদের অভিযোগ, রাজ্য কমিটিতে কোনও মতুয়া সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি নেই।

এবার বিজেপির সমস্ত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে বেরিয়ে গেলেন কেন্দ্রীয় জাহাজ প্রতিমন্ত্রী তথা মতুয়া সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। জল্পনা বাড়িয়ে তিনি সাংবাদিকদের তিনি বলেন – “বিজেপির হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ গুলি থেকে আমি বেরিয়ে গিয়েছি। কেন বেরিয়ে গেলাম তার কারণ আগামিদিনে এর বিস্তারিত জবাব দেব।” তবে কী তিনি বিজেপিও ছাড়ছেন? এই বিষয়ে অবশ্য তিনি কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

প্রসঙ্গত, রাজ‍্য কমিটিতে মতুয়া সম্প্রদায়ের কোনো প্রতিনিধি নেই। তারই প্রতিবাদে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে বেরিয়ে গিয়েছিলেন পাঁচ বিধায়ক। এই পাঁচজন হলেন, গাইঘাটার বিধায়ক সুব্রত ঠাকুর, বনগাঁ উত্তরের বিধায়ক অশোক কীর্তনীয়া, হরিণঘাটার বিধায়ক অসীম সরকার, কল্যাণীর বিধায়ক অম্বিকা রায় এবং রানাঘাট দক্ষিণের বিধায়ক মুকুটমণি অধিকারী।

রাজ‍্য কমিটি নিয়ে খুশি ছিলেন না কেন্দ্রীয় জাহাজ প্রতিমন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরও। এই বিষয়ে কথা বলতে তিনি বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার সাথে দেখা করতে সময় চেয়েছিলেন। এরই মধ্যে তৃণমূলের তরফ থেকে বিক্ষুব্ধ মতুয়া বিধায়কদের তৃণমূলে যোগ দেওয়ার আহ্বান করা হয়েছে। ঠাকুর বাড়ির আর এক প্রাক্তন সাংসদ তথা তৃণমূল নেত্রী মমতাবালা ঠাকুর ও খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এই ব্যাপারে আশাবাদী যে বিক্ষুব্ধ মতুয়া বিধায়করা তৃণমূলে যোগ দেবেন।

শান্তনু ঠাকুর
BJP: রাজ্য কমিটিতে ঠাঁই না পাওয়া বিজেপির বিক্ষুব্ধ মতুয়া নেতারা তৃণমূলে যোগ দেবেন!

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in