রেড ভলান্টিয়ারদের কাজে খুশি সেনাবাহিনীতে কর্মরত মেজর, নিজের খরচে দিলেন অক্সিজেন কনসেনট্রেটর

ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার ঋত্বিক নিজের খরচে একাধিক অক্সিজেন কনসেনট্রেটর তৈরি করে বিভিন্ন সংগঠনের হাতে তুলে দিচ্ছেন
রেড ভলান্টিয়ারদের কাজে খুশি সেনাবাহিনীতে কর্মরত মেজর, নিজের খরচে দিলেন অক্সিজেন কনসেনট্রেটর
ছবি- রেড ভলান্টিয়ার গ্রুপ

ছুটি কাটাতে এসে করোনার দ্বিতীয় ধাক্কায় বাড়িতেই থেকে যেতে হয়েছে সেনাবাহিনীর মেজর ঋত্বিক পালকে। কিন্তু ছুটি বলে হাত-পা গুটিয়ে তিনি বসে নেই। বাড়িতেই তৈরি করেছেন অক্সিজেন কনসেনট্রেটর। ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার ঋত্বিক নিজের খরচে একাধিক অক্সিজেন কনসেনট্রেটর তৈরি করে বিভিন্ন সংগঠনের হাতে তুলে দিচ্ছেন।

বানাতে খরচ পড়ছে ৫৫ হাজার টাকা। সহযোগী হিসেবে পেয়েছেন কলকাতা পুলিশের বিপর্যয় মোকাবিলা বিভাগে কর্মরত সুভাষ দেবনাথকে। শনিবার এই অক্সিজেন কনসেনট্রেটর রেড ভলান্টিয়ারদের হাতে তুলে দেন তাঁরা। কীভাবে তা ব্যবহার করতে হবে, সেই প্রশিক্ষণও দেন তিনি। সেখানকার মেঘদুত ক্লাবের হতেও একটি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর তুলে দেওয়া হয়।

অন্যদিকে, পশ্চিম মেদিনীপুরে রেড ভলান্টিয়ারদের কর্মকাণ্ডে কিছুটা নিশ্চিন্ত সেখানকার বাসিন্দারা। গড়বেতা সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী তপন ঘোষ। ওই এলাকায় রেড ভলান্টিয়ারদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি। তাঁর ছেলে নিউটন ঘোষ তরুণ চিকিৎসক। তিনিও রেড ভলান্টিয়ারের একজন সদস্য। রোগী দেখতে কোন চার্জ নিচ্ছেন না। প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র অক্সিজেনের ব্যবস্থা করছেন। তা রেড ভলান্টিয়ারের সদস্যরাই রোগীর বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছেন।

গতবছর লকডাউনে ৪২ দিন ধরে রান্না করা খাবার, ১০০ কুইন্টাল চাল, ২৫ কুইন্টাল ডাল, ৪০ কুইন্টাল আলু- সহ মশলাপাতি বুথে বুথে পৌঁছে দিয়েছিলেন। গড়বেতার প্রত্যন্ত গ্রামে করোনা আক্রান্তের অক্সিজেন লেভেল কমে গেলেই পৌঁছে দিচ্ছেন অক্সিজেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in