বগটুইকাণ্ডের রাতে মূল অভিযুক্তের সাথে অনুব্রতের কথা! আদালতে চাঞ্চল্যকর দাবি CBI-র

আদালতে সিবিআই দাবি করেছে, ঘটনার দিন ও তার পরের দিন বগটুইকাণ্ডে অন্যতম মূল অভিযুক্ত আনারুল হকের সাথে ফোনে কথা হয় অনুব্রতর।
বগটুইকাণ্ডের রাতে মূল অভিযুক্তের সাথে অনুব্রতের কথা! আদালতে চাঞ্চল্যকর দাবি CBI-র
গ্রাফিক্স - আকাশ নেয়ে

বগটুই কাণ্ডে যুক্ত থাকতে পারেন বীরভূমের দোর্দণ্ডপ্রতাপ তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। আদালতে চার্জশিট পেশ করে এমনটাই দাবি করল তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। ফোনের কললিস্ট খতিয়ে দেখতে চায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা।

গোরুপাচারকাণ্ডে এই মুহূর্তে জেল হেফাজতে আছেন অনুব্রত মণ্ডল। এবার বগটুই কাণ্ডেও অনুব্রত যোগ খুঁজে পাচ্ছেন সিবিআই আধিকারিকরা। আদালতে সিবিআই দাবি করেছে, ঘটনার দিন ও তার পরের দিন বগটুইকাণ্ডে অন্যতম মূল অভিযুক্ত আনারুল হকের সাথে ফোনে কথা হয় অনুব্রতর। ২১ মার্চ রাত ৮টা ৫০মিনিট নাগাদ ও ২২ মার্চ দুজনের মধ্যে কথোপকথন হয়। ফলে এখনও তদন্তের প্রয়োজন আছে। ঠিক কী কথা হয় তাঁদের মধ্যে তা জানতে হবে। বগটুই নিয়ে কোনও আলোচনা হয়েছিল কিনা দু'জনের মধ্যে তা খতিয়ে দেখতে হবে।

পাশাপাশি আদালতে সিবিআই এও আবেদন করেছে, লালন শেখের মৃত্যুর পর একাধিক সিবিআই আধিকারিকদের নামে এফআইআর (FIR) করা হয়েছিল। সেই এফআইআর খারিজ করতে হবে। কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশেই সিবিআই তদন্ত চালাচ্ছে। সেখানে যেন সিআইডি (CID) হস্তক্ষেপ না করে। এই মামলার পরবর্তী শুনানি ৬ জানুয়ারি।

উল্লেখ্য, সিবিআই হেফাজতে বগটুই গণহত্যার মূল অভিযুক্ত লালন শেখের অস্বাভাবিক মৃত্যুকাণ্ডের জেরে মামলা দায়ের হয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টে। সেই ঘটনায় ৭ জন সিবিআই আধিকারিকদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় মামলা রুজু করেছিল পুলিশ। সিবিআই-র ৭ আধিকারিকের বিরুদ্ধে পুলিশের পদক্ষেপকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে পাল্টা আইনি পদক্ষেপ নিয়েছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

বগটুইকাণ্ডের রাতে মূল অভিযুক্তের সাথে অনুব্রতের কথা! আদালতে চাঞ্চল্যকর দাবি CBI-র
TMC: 'আবাস যোজনায় ঘর পেতে হলে তৃণমূল দলটাই করতে হবে' - হুঁশিয়ারি তৃণমূল নেত্রীর

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in