হলদিয়ার প্রাক্তন পুরপ্রধানের বিরুদ্ধে থানায় দুর্নীতির অভিযোগ, শুরু রাজনৈতিক চাপানউতোর
নিজস্ব চিত্র

হলদিয়ার প্রাক্তন পুরপ্রধানের বিরুদ্ধে থানায় দুর্নীতির অভিযোগ, শুরু রাজনৈতিক চাপানউতোর

টেন্ডার দুর্নীতি নিয়ে হলদিয়ার ভবানীপুর থানায় প্রাক্তন চেয়ারম্যান শ্যামলকুমার আদকের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়েছে।

প্রাক্তন চেয়ারম্যান শ্যামলকুমার আদকের বিরুদ্ধে ভবানীপুর থানায় দুর্নীতির অভিযােগ দায়ের হয়েছে। রাজ্যের নির্দেশে তদন্ত শুরু করলেন হলদিয়ার মহকুমাশাসক। শিল্প শহর হলদিয়া এই ধরনের ঘটনায় শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর। ভোটের আগেই শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ প্রাক্তন পুরপ্রধান শ্যামল আদক তৃণমূল ছাড়েন। তারপরই এই ধরনের তার বিরুদ্ধে অভিযোগে রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক কানাঘুষো শুরু হয়েছে।

পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে , টেন্ডার দুর্নীতি নিয়ে হলদিয়ার ভবানীপুর থানায় প্রাক্তন চেয়ারম্যান শ্যামলকুমার আদকের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়েছে । অভিযােগ , শ্যামলবাবু অবৈধভাবে নিজের এবং আত্মীয়স্বজনদের ঠিকাদারি সংস্থাকে পুরসভার কাজের টেন্ডার দিয়েছেন। সেই কাজ শেষ হওয়ার আগেই ঠিকাদার সংস্থাকে ফুলপেমেন্ট অর্থাৎ পুরাে টাকা মেটানাের অভিযােগ উঠেছে।

কোথাও সেই কাজ আদৌ হয়নি, আবার কোথাওবা মাঝ পথে আটকে রয়েছে কাজ। কিন্তু ঠিকাদার সংস্থা টাকা নিয়ে চলে গিয়েছে। এই ঘটনায় দুর্নীতি ও স্বজনপােষণের অভিযােগ উঠেছে। গত ১৬ আগস্ট রাজ্যের পুর ও নগরােন্নয়ন দপ্তরের অ্যাডিশনাল সেক্রেটারি পুর কর্তৃপক্ষকে এই মর্মে একটি এফআইআর করার নির্দেশ দেয়। তারপরই পুরসভার এগজিকিউটিভ অফিসার থানায় চিঠি লিখে অভিযােগপত্রটি এফআইআর হিসেবে দেখতে বলেন।

এফ আই আর কপি
এফ আই আর কপি নিজস্ব চিত্র

এই ঘটনার পরই হলদিয়া জুড়ে রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়েছে। জানা গিয়েছে, মাসখানেক আগে প্রাক্তন চেয়ারম্যানের সময়কার অনেকগুলি ফাইল নগরােন্নয়ন দপ্তর চেয়ে পাঠায়। সেই ফাইল খতিয়ে দেখার পরই রাজ্য থেকে পুরসভাকে এফআইএর করার নির্দেশ দিয়েছে। ১০-১২টি ফাইল নিয়ে নানা ধরনের প্রশ্ন উঠেছে। তবে এফআইআর বা তদন্ত নিয়ে পুর কর্তৃপক্ষ বা মহকুমাশাসক মুখ খুলতে চাননি।

এই ব্যাপারে তমলুক সাংগঠনিক জেলা তৃণমূলের সভাপতি দেবপ্রসাদ মন্ডল জানিয়েছেন, "একাধিক জায়গায় কাজ হয়নি কিন্তু টাকা বরাদ্দ হয়ে গিয়েছে। তাই সমস্ত বিষয়টি তদন্ত হবে।" যদিও গোটা বিষয় নিয়ে কোন ভাবে মুখ খুলতে চাননি বর্তমান পুরপ্রধান সুধাংশু মন্ডল।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in