৫ বছরে ১.৫ কোটি কর্মসংস্থান হবে, দাবি মুখ্যমন্ত্রীর

যদিও, কর্মসংস্থান তৈরির লক্ষ্যে বিশেষ কোনো প্রকল্প বা বরাদ্দ ঘোষণা করা হয়নি বাজেটে।
৫ বছরে ১.৫ কোটি কর্মসংস্থান হবে, দাবি মুখ্যমন্ত্রীর
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ফাইল ছবি

আগামী পাঁচ বছরে দেড় কোটি কর্মসংস্থানের লক্ষ্য রাজ্যের। নির্ধারিত সূচি মেনে বুধবার বিধানসভায় অসুস্থ অমিত মিত্রর পরিবর্তে বাজেট পেশ করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সেখানেই আগামী পাঁচ বছরে রাজ্যে দেড় কোটি কর্মসংস্থান তৈরির আশা প্রকাশ করে রাজ্যের ক্ষমতাসীন সরকার। নির্বাচনের আগে থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের নজরে ছিলো রাজ্যে বেকার সমস্যা। কারণ বিরোধীদের পক্ষ থেকে সময় সময় ধেয়ে এসেছে কর্ম সংস্থান নিয়ে কটাক্ষ। এবার তারই জবাব দিল মমতা সরকার।

তাই তৃতীয় মমতা সরকারের প্রথম বাজেটেও ঢালাও কর্মসংস্থানে জোর দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। নির্বাচনের আগে বিরোধীদের মূল হাতিয়ার ছিলো রাজ্যের শিল্পায়ন ও কর্ম সংস্থান। কিন্তু এবার বিরোধীদের সেই হাতিয়ারকে কাজে লাগিয়ে মানুষের মন জয় করতে চলেছে রাজ্য। যদিও, কর্মসংস্থান তৈরির লক্ষ্যে বিশেষ কোনো প্রকল্প বা বরাদ্দ ঘোষণা করা হয়নি বাজেটে। তবে নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রীর ডবল চাকরির প্রতিশ্রুতি এবার সফল হতে চলেছে। এমনটাই এদিন বিধানসভায় বাজেট বক্তৃতায় ব্যক্ত করেন পরিষদীয় নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, '৫ ফেব্রুয়ারি পেশ করা অন্তর্বর্তী বাজেটের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী আমরা আশাবাদী যে, আগামী ৫ বছরে ১.৫ কোটি নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে পারব।' তবে পার্থ বাবুর বাজেট বক্তৃতায় দেড় কোটি কর্ম সংস্থান শুধুই প্রতিশ্রুতি না বাস্তবায়ন হবে তা সময় বলবে। কারণ বাজেটে পাঁচ বছরে দেড় কোটি কর্মসংস্থানের কথা বলা হলেও তার কোনো নির্দিষ্ট পরিকল্পনার কথা জানানো হয়নি। স্বাভাবিকভাবেই বিশিষ্ট মহলে প্রশ্ন তাহলে কীভাবে দেড় কোটি কর্মসংস্থান সম্ভব? কারণ যে কোনো কিছু বাস্তবায়নের জন্য নির্দিষ্ট প্রকল্প বা বরাদ্দের প্রয়োজন। কিন্তু বাজেটে তা নেই।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের পরিসংখ্যান দিয়ে জানান, আগামীদিনে দেউচা পাচামিতে ১ লক্ষ মানুষের কাজের সম্ভবনা রয়েছে। পাশাপাশি রঘুনাথপুরে ৭২ হাজার কোটির বিনিয়োগ এসেছে। সেখানেও দুই থেকে আড়াই লক্ষ মানুষের কাজ হয়েছে। এছাড়াও সিলিকন ভ্যালিতেও ১১ হাজার কোটির বিনিয়োগ হয়েছে। ৫ বছরে ১০ লক্ষ স্বয়ম্ভর গোষ্ঠী তৈরি করবে রাজ্য সরকার। যা কর্মসংস্থান তৈরিতে সহায়ক হবে।' এছাড়াও সার্বিকভাবে রাজ্যের বিভিন্ন প্রকল্পে বহু মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলে এদিন বিধানসভায় দাবি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in