লাগাতার গণপিটুনি ও ডাকাতির ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী! ১১ দফা নির্দেশিকা জারি

People's Reporter: মঙ্গলবার নবান্নে বৈঠকে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, এই ধরনের ঘটনা কোনও ভাবেই বরদাস্ত করা হবে না। পুলিশকে চোখ-কান খোলা রাখতে হবে।
 মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ফাইল ছবি সংগৃহীত

রাজ্যে একের পর এক সামনে আসছে গণপিটুনি এবং ডাকাতির ঘটনা। সম্প্রতি এই ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এবার সেই ডাকাতি এবং গণপিটুনি রুখতে ১১ দফা নির্দেশিকা জারি করল ভবানী ভবন।

মঙ্গলবার নবান্নের সভাঘরে উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠকে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, ‘‘এই ধরনের ঘটনা কোনও ভাবেই বরদাস্ত করা হবে না। পুলিশকে চোখ-কান খোলা রাখতে হবে। পুলিশের নজরদারি আরও বাড়াতে হবে। এলাকায় এলাকায় পুলিশকে সোর্স তৈরি করতে হবে। খবর পাওয়া মাত্রই পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে হবে।’’ তার প্রেক্ষিতেই ১১ দফার নির্দেশিকা জারি করেছে ভবানী ভবন।

নির্দেশিকা গুলি একনজরে –

১। সকল পুলিশ অফিসারকে গণপিটুনি সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে।

২। খবর সংগ্রহের জন্য সিভিক ভলান্টিয়ার ও ভিলেজ পুলিশকে আরও ভাল ভাবে কাজে লাগানো যেতে পারে। যাতে পুলিশের কাজ সহজ হয়।

৩। সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে প্রচার চালাতে হবে।

৪। খবর সংগ্রহের জন্য স্থানীয় ক্লাবগুলিকেও কাজে লাগানো যেতে পারে।

৫। সমাজমাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে অনেক জায়গায় গণপিটুনির ঘটনা ঘটছে। তা আটকাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে হবে।

৬। সমাজমাধ্যমে নজরদারি বাড়াতে হবে। যাঁরা গুজব রটাচ্ছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করতে হবে।

৭। অনেক জায়গায় সোনার দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটছে। এই ধরনের ঘটনা আটকাতে ডাকাতদলগুলিকে ধরতে হবে। সেই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে সঙ্গে নিয়ে চলতে হবে এবং সঠিক খবর সংগ্রহ করতে হবে। বিভিন্ন ডাকাতদল সম্পর্কে আরও তথ্য জোগাড় করতে হবে। সেই জন্য বিহার ও ঝা়ড়খণ্ড পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াতে হবে।

৮। ডাকাতদলের ধৃত সদস্যদের কী বিচার হচ্ছে, সে দিকে দেখতে হবে। তাঁরা যাতে সাজা পায়, তা নিশ্চিত করতে হবে।

৯। নাকা চেকিংয়ে গুরুত্ব দিতে হবে।

১০। সম্প্রতি কিছু খুনের ঘটনাও ঘটেছে। যেখানে আগ্নেয়াস্ত্র, বোমা ব্যবহার করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র, বোমা উদ্ধার অভিযান জারি রাখতে হবে। থানার পুলিশ অফিসারদের এ ব্যাপারে বিশেষ সজাগ থাকতে হবে। এই প্রক্রিয়ার উপর নজরদারি চালাতে হবে উচ্চ পদস্থ আধিকারিকদের।

১১। মহিলাদের সঙ্গে কোনও অপরাধের ঘটনা ঘটলে, তাতে গুরুত্ব দিয়ে পদক্ষেপ করতে হবে। জরুরি ভিত্তিতে মামলা দায়ের করে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে হবে।

 মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকের লাইভে মন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করে ধৃত যুবক! মুক্তির নির্দেশ বিচারপতি সিনহার
 মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
পুর নিয়োগ মামলায় দক্ষিণ দমদমের প্রাক্তন চেয়ারম্যান পাঁচু রায়ের বিরুদ্ধে চার্জশিট পেশ CBI-এর

GOOGLE NEWS-এ Telegram-এ আমাদের ফলো করুন। YouTube -এ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in