TMC: অর্পিতা ঘোষের ছেড়ে যাওয়া আসনে রাজ্যসভায় বাবুল সুপ্রিয়! জল্পনা রাজনৈতিক মহলে

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অধিকাংশেরই মতে জাতীয় পর্যায়ে বাবুল সুপ্রিয়কে কাজে লাগাবে তৃণমূল। সেই হিসেবে অর্পিতা ঘোষের সদ‍্য ছেড়ে আসা রাজ‍্যসভার আসনে বাবুল সুপ্রিয়কে পাঠানো হতে পারে বলে মনে করছেন তাঁরা।
TMC: অর্পিতা ঘোষের ছেড়ে যাওয়া আসনে রাজ্যসভায় বাবুল সুপ্রিয়! জল্পনা রাজনৈতিক মহলে
অর্পিতা ঘোষ ও বাবুল সুপ্রিয়ফাইল ছবি

গতকাল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর প্রাক্তন বিজেপি নেতার ভবিষ্যত নিয়ে একাধিক সম্ভাবনার কথা উঠে আসছে‌। তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অধিকাংশেরই মতে জাতীয় পর্যায়ে বাবুল সুপ্রিয়কে কাজে লাগাবে তৃণমূল। সেই হিসেবে অর্পিতা ঘোষের সদ‍্য ছেড়ে আসা রাজ‍্যসভার আসনে বাবুল সুপ্রিয়কে পাঠানো হতে পারে বলে মনে করছেন তাঁরা।

জুলাই মাসে নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রিসভা রদবদলের সময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। তখন থেকেই বিজেপির সাথে বাবুল সুপ্রিয়র সম্পর্কে ফাটল ধরে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি জানিয়েছিলেন, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল তাঁকে, যা ঠিক নয়। ওই মাসেই রাজনীতি ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন তিনি। যদিও সেকথা তিনি রাখেননি। গতকাল তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন তিনি।

সূত্রের খবর, বাবুলের দলবদল নিয়ে অনেক আগেই নিশ্চিত হয়েছিল তৃণমূল। বাবুলের জন্য পথ তৈরি করতে সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিতে বাধ‍্য করা হয়েছে অর্পিতা ঘোষকে। ২৪-এর লোকসভা নির্বাচনের আগে জাতীয় রাজনীতিতে নিজের দলের বিস্তার চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস। সাত বছর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থাকা বাবুলের হাতে সেই দায়িত্ব তুলে দিতে চাইছে তারা। তাই বাবুলকে দিল্লি পাঠাতে চাইছে দল।

এছাড়াও বিজেপিতে তাঁর দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতাকে গেরুয়া শিবিরের রণকৌশল বুঝতে ব‍্যবহার করতে চাইছে তৃণমূল। সেই কারণে ঝাড়খণ্ড, বিহার, ওড়িশা এবং উত্তর-পূর্ব রাজ‍্যগুলিতে দলের বিস্তারে বাবুলকে ব‍্যবহার করতে চায় তৃণমূল বলে সূত্রের খবর।

বিজেপি নেতা অনুপম হাজরার ট‍্যুইটে তৃণমূল কংগ্রেসের এই পরিকল্পনার ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। তিনি ট‍্যুইটারে লিখেছেন, "তার মানে 'ঝাল-মুড়ি' রফা আগেই হয়ে গিয়েছিল, জাস্ট অপেক্ষা করা হয়েছিল রাজ‍্য সভাতে কিভাবে পাঠানো যায়! তাই হয়তো বেচারী অর্পিতা দেবীকে এতো তড়িঘড়ি করে রাজ‍্যসভা ছেড়ে থিয়েটারে মন দিতে বলা।"

প্রসঙ্গত, অর্পিতা ঘোষের ছেড়ে আসা রাজ‍্যসভার সাংসদ পদের মেয়াদ শেষ হতে এখনও প্রায় ছয় বছর বাকি। তাড়াহুড়ো করে আচমকা কেন তাঁকে পদত্যাগ করানো হয় তা নিয়ে ধোঁয়াশা ছিলোই।

যদিও তৃণমূলের পক্ষ থেকে বাবুলের ভবিষ্যত নিয়ে এখনও একটিও শব্দ বলা হয়নি‌। আজ বিকেল ৩টেয় ফের সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

- With inputs from IANS

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in