বিধানসভার মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে, CBI-ED কর্তাদের তলব বিধানসভার অধ্যক্ষের

দুই এজেন্সি যদিও পাল্টা জানিয়েছে, চার্জশিট দাখিলের জন্য তাঁরা রাজ্যপালের কাছ থেকে অনুমোদন নিয়েছেন
বিধানসভার মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে, CBI-ED কর্তাদের তলব বিধানসভার অধ্যক্ষের
ফাইল চিত্র

নারদ কাণ্ডে দুই মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ও সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং বিধায়ক মদন মিত্রের বিরুদ্ধে সিবিআই, সম্প্রতি ইডি চার্জশিট দিয়েছে। তাঁকে গুরুত্ব না দিয়ে নারদ কাণ্ডে যে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে, তা বিধিসম্মত নয়। দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী এজেন্সি সিবিআই এবং ইডির ভূমিকায় রাজ্যের বিধানসভার মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে। এমনটাই মনে করছেন বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই আচরণের বিরুদ্ধে বুধবার দেশের বিধানসভার অধ্যক্ষদের সম্মেলনে তিনি মুখ খুলবেন বলে সোমবার সাংবাদিকদের জানান।

দুই এজেন্সি যদিও পাল্টা জানিয়েছে, চার্জশিট দাখিলের জন্য তাঁরা রাজ্যপালের কাছ থেকে অনুমোদন নিয়েছেন। সেক্ষেত্রে অধ্যক্ষের অনুমোদন আবশ্যিক নয়। কিন্তু রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর অযাচিতভাবে তাঁর এক্তিয়ারে হস্তক্ষেপ করছেন বলে আগেই অভিযোগ করেছিলেন অধ্যক্ষ। এনিয়ে তিনি ইতিমধ্যেই একবার বিধানসভার অধ্যক্ষদের সম্মেলনে নালিশ জানান। এবার দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার এহেন ভূমিকা নিয়ে জাতীয় স্তরে সরব হতে চাইছেন ক্ষুব্ধ অধ্যক্ষ।

তাঁর অনুমতি না নিয়ে নারদা মামলায় রাজ্যের ৩ বিধায়কের বিরুদ্ধে চার্জশিট ফাইল করায় দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার কর্তাদের ডেকে পাঠিয়েছেন রাজ্য বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। চিঠিতে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর বেলা একটায় সিবিআই ও ইডি-র আধিকারিকদের বিধানসভায় স্পিকারের সামনে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে।

রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, বিমানবাবুর এহেন পদক্ষেপ রাজ্য বিধানসভার ইতিহাসে নজিরবিহীন। তাঁর উদ্দেশ্য, প্রধান উদ্যোক্তা তথা লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লার দৃষ্টি আকর্ষণ করা।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in