পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে বামেদের বিক্ষোভের আগেই মঞ্চ ভেঙে দিল পুলিশ, গ্রেপ্তার ৪৫

শুক্রবার বিকালে ঢাকুরিয়ার ইন্ডিয়ান অয়েলের কার্যালয়ের সামনে মঞ্চ বেঁধে বিক্ষোভে শামিল হন কলকাতা জেলা বামফ্রন্টের সদস্যরা
পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে বামেদের বিক্ষোভের আগেই মঞ্চ ভেঙে দিল পুলিশ, গ্রেপ্তার ৪৫
গ্রেপ্তার সুজন চক্রবর্তীছবি- নিজস্ব

পেট্রোল, ডিজেল সহ সমস্ত পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাম কর্মীরা পথে নেমেই পুলিশি বাধার সম্মুখীন হলেন। রাস্তার উপর তারা প্রতিবাদ মঞ্চ করেছিলেন। অভিযোগ সেই মঞ্চ ভেঙে দেয় পুলিশ। বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে গ্রেফতার হইয়েছেন প্রাক্তন সিপিএম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী-সহ প্রায় ৪৫ জন নেতা কর্মী।

পেট্রোপণ্যের লাগামছাড়া মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে তাঁদের এই প্রতিবাদ কর্মসূচি পূর্ব ঘোষিত ছিল। শুক্রবার বিকালে ঢাকুরিয়ার ইন্ডিয়ান অয়েলের কার্যালয়ের সামনে মঞ্চ বেঁধে বিক্ষোভে শামিল হন কলকাতা জেলা বামফ্রন্টের সদস্যরা। পুলিশের প্রয়োজনীয় অনুমতি নেওয়া ছিল বলে সংগঠনের সদস্যদের দাবি। তবে পুলিশ সেই দাবি মানতে নারাজ। তাঁদের দাবি প্রয়োজনীয় অনুমতি ছিল না তাঁদের।

অবস্থন-বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পরেই পুলিশ মঞ্চ ভেঙে দেয়। এরপরই পুলিশের সঙ্গে বাম কর্মী, সমর্থকদের বচসা, হাতাহাতি বাধে। দু’পক্ষের ধস্তাধস্তিতে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ঢাকুরিয়া চত্বর। পুলিশ সুজন চক্রবর্তী-সহ ৪৫ জনকে আটক করে লালবাজারে নিয়ে যায়। পরে সুজন চক্রবর্তীকে ছেড়ে দেওয়া হলেও বাকিদের এখনও আটকে রাখা হয়েছে।

পুলিশের বক্তব্য, করোনা পরিস্থিতিতে বিধি ভেঙে জমায়েত করার জন্যই বাম নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বামেদের দাবি সমস্ত প্রটোকল মেনেই তাঁরা প্রতিবাদ কর্মসূচি নিয়েছিলেন। তাঁদের বক্তব্য- কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে তৃণমূল সরকারের পুলিশের এত সক্রিয়তার কারন কী!

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in