লাগাতার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ - পরিস্থিতি সামাল দিতে অর্জুন সিংকে দিল্লি তলব, আজই বৈঠক

গত কয়েকদিন লাগাতার কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে যাচ্ছিলেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। এমনকী রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃনমূল দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠিও দিয়েছেন তিনি।
লাগাতার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ - পরিস্থিতি সামাল দিতে অর্জুন সিংকে দিল্লি তলব, আজই বৈঠক
অর্জুন সিং ফাইল ছবি

গত কয়েকদিন লাগাতার কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে যাচ্ছিলেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। এমনকী রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃনমূল দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠিও দিয়েছেন তিনি। যা নিয়ে অস্বস্তি বাড়ছিল গেরুয়া শিবিরে। তাই পরিস্থিতি সামাল দিতে তড়িঘড়ি অর্জুন সিংকে দিল্লি তলব করলো কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

পাট শিল্পের সমস্যা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন অর্জুন সিং। আজ রাতেই কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল তাঁর সাথে এই বিষয়ে কথা বলবেন। ইতিমধ্যেই

দিল্লির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন অর্জুন সিং। রওনা দেওয়ার আগে কলকাতা বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সামনে তিনি বলেন - জুট ইস্যুতে আমি দুবার চিঠি দিয়েছিলাম পীযূষ গোয়েলকে। দুপুরে হঠাৎই উনি ফোন করে বলেন, আপনি চলে আসুন। আপনার সঙ্গে এই ইস্যুতে জরুরি কথা আছে। রাত ১০ টায় মিটিং আছে। দেখা যাক মিটিংয়ে কি হচ্ছে।

গতকাল মমতা বন্দোপাধ্যায় সহ আরো চার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে এই ইস্যুতে চিঠি দিয়েছিলেন অর্জুন সিং। এই প্রসঙ্গে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন - "আমি একটা জিনিষ স্পষ্ট জানি জুট মিলের শ্রমিক আমার মা-বাবা। শ্রমিকদের জন্য আজকে আমি কাউন্সিলর থেকে এমপি হয়েছি। এই লড়াইয়ের শেষ দেখে ছাড়বো। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যখন ডেকেছে তখন কিছু একটা রাস্তা বের করার জন্য ডেকেছেন। কিন্তু যে রাস্তাই বেরোবে সবটাই শ্রমিক-চাষী-ইন্ডাস্ট্রির পক্ষেই হাওয়া দরকার।"

জুট মিলের সামনে তৃণমূলের অবস্থান বিক্ষোভ চলছে। এই বিক্ষোভ তিনি সাপোর্ট করেন কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন - আমি তো এই আন্দোলনের সঙ্গে আছি। আন্দোলনে সামিল হব। যারা আন্দোলনের সঙ্গে থাকবে, সবাইকে আমি সাধুবাদ জানাবো।

অর্জুন সিংয়ের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দেওয়া নিয়ে বিজেপির সর্ব ভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন এই জুট থেকে অনেকে কামিয়েছেন উনি (অর্জুন সিং)। এই প্রসঙ্গে এদিন সাংবাদিকরা তাঁর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন - দিলীপ ঘোষ কী বলেছেন আমি জানিনা। দিলীপ দার কোনো কথার উত্তর দেওয়ারও আমার দরকার নেই। দিলীপ দা যদি এই কথাটা বলে থাকেন তাহলে ভুল করেছেন। আমি চাকরি করেছি জুটমিলে। যদি চাকরিটাকে কামিয়ে নেওয়া বলা যায় সেটা ওনার ভুল।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি সেন্ট্রাল জুট কমিশন কাঁচা পাটের দামের ঊর্ধ্বসীমা বেঁধে দিয়েছে। অর্জুন সিংয়ের অভিযোগ, এইভাবে দামের ঊর্ধ্বসীমা বেঁধে দেওয়ায় প্রবল সঙ্কটে পড়ে গিয়েছেন এই শিল্পের সঙ্গে জড়িত অসংখ্য মানুষ। এমনকি সিদ্ধান্ত না বদলালে কেন্দ্রীয় নীতির বিরুদ্ধে মিছিল ও আন্দোলন নামার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তিনি।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.