Partha Chatterjee: সাসপেন্ড পার্থ, 'দুর্নীতিগ্রস্তদের কঠোর শাস্তি হোক' - সাংবাদিক সম্মেলনে অভিষেক

মন্ত্রীত্ব থেকে অপসারণের পর তৃণমূলের সমস্ত পদ থেকে সাসপেন্ড করা হল তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন দলীয় সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।
সাংবাদিক সম্মেলনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়
সাংবাদিক সম্মেলনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ছবি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফেসবুক পেজ থেকে স্ক্রীনশট

মন্ত্রীত্ব থেকে অপসারণের পর তৃণমূলের সমস্ত পদ থেকে সাসপেন্ড করা হল তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন দলীয় সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁকে দলীয় মুখপত্রের সম্পাদক পদ থেকেও অপসারণ করা হয়েছে। তৃণমূলের পাঁচ পদ থেকে এদিন অপসারণ করা হয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। এর আগে তাঁকে মন্ত্রীত্ব থেকে অপসারিত করা হয়।

এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে পার্থ চট্টোপাধ্যায় প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে অভিষেক বলেন, দল রেয়াত করবে না। সাধারণ মানুষের প্রতি অবিচার হলে আপোষ করে না তৃণমূল। 'মানুষের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করতে পারব না'। দুর্নীতিগ্রস্তদের কঠোর শাস্তি হোক। উদ্ধার হওয়া টাকা দলের নয় বলেও জানিয়েছেন অভিষেক।

এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক বলেন, পার্থকে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে হবে। দোষ আদালতের কাছে প্রমাণিত হলে পার্থ বুঝবেন। কাউকে বাঁচানোর চেষ্টা করা হচ্ছে না। যদি কেউ অন্যায় করে থাকে প্রমাণ হলে তৃণমূল তাঁর পাশে দাঁড়াবে না। কেউ অন্যায় করলে তৃণমূল রেয়াত করবে না।

এদিন অভিষেক দাবি করেন, 'একই মঞ্চে মমতার সঙ্গে দেখা গেলে কিছু প্রমাণিত হয় না'। একই মঞ্চে তো নরেন্দ্র মোদী নীরব মোদীকেও দেখা গেছে। ব্যাপম কান্ডে অভিযুক্ত মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী, কেন ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না? কী ব্যবস্থা নিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা? বিজেপির ক্ষেত্রে আলাদা আইন, তৃণমূলের ক্ষেত্রে আলাদা আইন হতে পারে না।

তিনি আরও বলেন, ২২ তারিখের একটি ঘটনা সামনে এসেছে। বিপুল পরিমাণ টাকার উৎস কী? এত কালো টাকা কোথা থেকে এল বের করুক ইডি। কার সঙ্গে কার আঁতাতে এই দুর্নীতি খতিয়ে দেখুক কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সিবিআই ইডি চাইলে সহযোগিতা করবে রাজ্য। নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে তদন্ত শেষ করুক কেন্দ্রীয় সংস্থা।

এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে দলীয় ব্যবস্থা গ্রহণ প্রসঙ্গে অভিষেক জানান, ভারতে একটিও রাজনৈতিক দল নেই যারা ৬ দিনের মধ্যে ব্যবস্থা নিয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in