মমতার সিদ্ধান্ত ঠিক কিন্তু দলের নয়, তদন্তকে প্রভাবিত করতে পারে, মন্তব্য পার্থর

পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে দলীয় পদ থেকে সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। যাঁর সাথে পার্থর সম্পর্ক খুব একটা মধুর না বলেই জানে সকলে।
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং পার্থ চট্টোপাধ্যায়
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং পার্থ চট্টোপাধ্যায়ফাইল ছবি

বৃহস্পতিবারই দলের সমস্ত পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। তার পরের দিনই দলের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে মুখ খুললেন তিনি। এই সিদ্ধান্ত সঠিক নয় বলে মন্তব্য করলেন তিনি। তাঁর মতে দলের এই সিদ্ধান্ত নিরপেক্ষ তদন্তকে প্রভাবিত করতে পারে।

শুক্রবার মেডিক্যাল চেকআপের জন্য জোকার ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল সদ্য মন্ত্রিসভা ও দল থেকে বহিষ্কার হওয়া পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। হাসপাতালে ঢোকার সময় সাংবাদিকদের তিনি বলেছিলেন তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন। এর বেশি কিছু বলার সুযোগ পাননি তিনি। ঘন্টাখানেক পর হাসপাতাল থেকে বেরোনোর সময় সাংবাদিকরা তাঁকে প্রশ্ন করেন কাদের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন তিনি? এর উত্তরে তিনি কারও নাম বলেননি।

এরপরই রাজ্যের প্রাক্তন শিল্পমন্ত্রীকে প্রশ্ন করা হয়, দল যে তাঁকে সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা ঠিক কিনা? এর উত্তরে তিনি বলেন, "সময়টা ঠিক না। এই সিদ্ধান্ত নিরপেক্ষ তদন্তকে প্রভাবিত করতে পারে।" ফের একই প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, "সময় বলবে।"

এরপর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে তাঁর মতামত জানতে চান সাংবাদিকরা। এর উত্তরে পার্থ জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। অর্থাৎ তাঁকে মন্ত্রিসভা থেকে ছেঁটে ফেলার সিদ্ধান্ত ঠিক। কিন্তু দলীয় পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত সঠিক নয়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে দলীয় পদ থেকে সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। যাঁর সাথে পার্থর সম্পর্ক খুব একটা মধুর না বলেই জানে সকলে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in