চাকরি স্থায়ীকরণ, বেতন বৃদ্ধি সহ একাধিক দাবিতে বিধানসভা চত্বরে বিক্ষোভ পার্শ্বশিক্ষকদের, আটক ৫০

আজ বিধানসভা অধিবেশন বসার কথা। সেখানে উপস্থিত থাকার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রীর। বিক্ষোভকারীদের দাবি ছিল, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তাঁরা তাঁদের দাবি পেশ করবেন, তবেই তাঁরা বিধানসভার গেট থেকে অবস্থান তুলবেন।
চাকরি স্থায়ীকরণ, বেতন বৃদ্ধি সহ একাধিক দাবিতে বিধানসভা চত্বরে বিক্ষোভ পার্শ্বশিক্ষকদের, আটক ৫০
বিধানসভার গেট ঠেলে ঢোকার চেষ্টা করছেন পার্শ্বশিক্ষকরানিজস্ব চিত্র

চাকরি স্থায়ীকরণ, বেতন বৃদ্ধি, চাকরি শেষে পেনশন সহ কুড়িটিরও বেশি দাবিদাওয়া নিয়ে বুধবার দুপুরে বিধানসভার নর্থ গেটের সামনে বিক্ষোভ দেখাল পার্শ্বশিক্ষকরা। এই বিক্ষোভ সামলাতে হিমসিম খেতে হলো পুলিশকে। কমপক্ষে ৫০ জন আন্দোলনকারীকে আটক করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, আজ বিধানসভা অধিবেশন বসার কথা। সেখানে উপস্থিত থাকার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এদিন বিক্ষোভকারীদের দাবি ছিল, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তাঁরা তাঁদের দাবি পেশ করবেন তবেই তাঁরা বিধানসভার গেট থেকে অবস্থান তুলবেন। কিন্তু এদিন মুখ্যমন্ত্রী বিধানসভায় না যাওয়ায় সেই দাবি তাদের পূরণ হয়নি। তার কারণে তাঁরা বিধানসভার নর্থ গেটের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করে। এরমধ্যেই বিক্ষোভকারীদের একটা অংশ বিধানসভার ওই গেটের ওপর উঠে যান। তবে হেয়ার স্ট্রিট থানার পুলিশ দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা শুরু করে। বিক্ষোভকারীদের সরানাে হয়। এদিকে প্রশ্ন উঠেছে, কিভাবে বিধানসভার মতাে গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় গিয়ে এই বিক্ষোভ দেখালেন বিক্ষোভকারীরা।

বুধবার সকাল ১১টা নাগাদ বিধানসভার উত্তর দিকের ৬ নম্বর ভিভিআইপি গেটের কাছে হঠাৎই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন শিক্ষিকারা। হঠাৎই সংগঠনের পতাকা বার করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন প্রায় জনা ৫০ মহিলা সদস্য। কয়েকজন গেট বেয়ে উপরেও উঠে পড়েন। বিধানসভার গেট টপকে ভিতেরে ঢুকতে চান তাঁরা। কোনওক্রমে তাঁদেরকে গেট থেকে টেনে নামায় পুলিশ। পর্যাপ্ত মহিলা কর্মী না থাকায় বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণে আনতে বেগ পেতে হয় পুলিশকে। কারণ বিক্ষোভকারীদের নিয়ে পুলিশের কাছে কোনও খবরই ছিল না। এরপরই গেটের সামনে শুয়ে পড়েন কিছু শিক্ষিকা। যার জেরে আরো উত্তেজনা সৃষ্টি হয় এলাকায়।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in