‘হত্যা, পরিকল্পিত হত্যা' - স্ট্যান স্বামীর মৃত্যুতে গণ প্রতিবাদের ডাক সূর্যকান্ত মিশ্রের

নিজের ট্যুইটের সঙ্গে এদিন একটি পোস্টারও শেয়ার করেছেন সূর্যকান্ত মিশ্র। যে পোস্টারে লেখা হয়েছে – মিথ্যা মামলায় ধৃত ৮৪ বছর বয়সী মানবাধিকার কর্মী স্ট্যান স্বামী আজ হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন।
‘হত্যা, পরিকল্পিত হত্যা' - স্ট্যান স্বামীর মৃত্যুতে গণ প্রতিবাদের ডাক সূর্যকান্ত মিশ্রের
স্ট্যান স্বামী ছবি- নিউজক্লিক ডট ইন

স্ট্যান স্বামীর মৃত্যুকে ‘হত্যা, পরিকল্পিত হত্যা’ বলে জানালেন সিপিআই(এম) রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। সোমবার রাতে এক ট্যুইট বার্তায় মিশ্র লেখেন, ‘হত্যা, পরিকল্পিত হত্যা। এই হত্যার সঙ্গে যুক্ত সকল ষড়যন্ত্রের নায়কদের বিচার চাই। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁর দায়িত্ব এড়িয়ে যেতে পারেন না। গণ প্রতিবাদ ও কৈফিয়ত চাই।’

নিজের ট্যুইটের সঙ্গে এদিন একটি পোস্টারও শেয়ার করেছেন সূর্যকান্ত মিশ্র। যে পোস্টারে লেখা হয়েছে – মিথ্যা মামলায় ধৃত ৮৪ বছর বয়সী মানবাধিকার কর্মী স্ট্যান স্বামী আজ হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। এর পরেই প্রশ্ন তোলা হয়েছে – মৃত্যু না হত্যা? জবাব দিতে হবে রাষ্ট্র পরিচালকদেরই।

প্রসঙ্গত এদিনই দুপুর দেড়টা নাগাদ মুম্বাইয়ের হোলি ফ্যামিলি হাসপাতালে প্রয়াত হন স্ট্যান স্বামী। গত বছরের অক্টোবর মাসে রাঁচির ঝাড়খন্ড থেকে স্ট্যান স্বামীকে গ্রেপ্তার করে এনআইএ। তাঁর বিরুদ্ধে এলগার পরিষদ কান্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছিলো। কঠোর UAPA আইনের অধীনে মামলা রুজু হয় তাঁর বিরুদ্ধে। নভি মুম্বাইয়ের তালোজা জেলে বন্দি করে রাখা হয় তাঁকে। পারকিনসন রোগে আক্রান্ত ছিলেন তিনি। শ্রবণশক্তিও হারিয়েছিলেন অশীতিপর এই বৃদ্ধ।

জেলের মধ্যে কোনো চিকিৎসা পরিষেবা পাচ্ছেন না অভিযোগ করে মেডিক্যাল গ্রাউন্ডে একাধিকবার জামিনের আবেদন করেন তিনি, প্রতিবারই তা খারিজ করে দেয় আদালত। এমনকি একটি স্ট্র-এর জন্যও একাধিকবার আদালতে আবেদন করতে হয়েছে তাঁকে। শারীরিক অবস্থার গুরুতর অবনতি হওয়ায় গত ২৮ মে একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্ট্যান স্বামীকে ভর্তি করার নির্দেশ দেয় বোম্বে হাইকোর্ট। সেখানেই আজ দুপুর দেড়টা নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত‍্যাগ করেন তিনি।

স্ট্যান স্বামী
এই হত্যার জবাবদিহি করতেই হবে: সমাজকর্মী স্ট্যান স্বামীর মৃত্যুতে দেশের পাশাপাশি উত্তাল বিদেশও

সমাজকর্মী স্ট‍্যান স্বামীর প্রয়াণে শোকস্তব্ধ গোটা দেশ। রাজনীতিবিদ থেকে শুরু করে চিত্রতারকা, সাংবাদিক, আমজনতা - ৮৪ বছরের এই মানবাধিকার কর্মীর মৃত্যুতে ট‍্যুইটারে শোক প্রকাশ করেছেন বহু মানুষ। অবশ‍্য বেশিরভাগ ট‍্যুইটেই শোকের তুলনায় সরকারের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ পেয়েছে বেশি করে। তাঁর মৃত্যুতে রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার কমিশনের পক্ষ থেকেও বার্তা দেওয়া হয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in