আরও বিপাকে মানিক! পরিবারের সদস্য সহ অজানা ব্যক্তিদের নামে একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট, অভিযোগ ED-র

মানিক পুত্রের নিজস্ব একটি সংস্থার সাথে প্রাথমিকভাবে চুক্তি হয় শিক্ষক শিক্ষণ সংস্থার। ওই চুক্তির ভিত্তিতে ২ কোটি ৬৪ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছিলেন মানিক।
মানিক ভট্টাচার্য
মানিক ভট্টাচার্যগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

গ্রেফতারির ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই মানিক ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে আদালতে বিষ্ফোরক অভিযোগ তুললেন গোয়েন্দা আধিকারিকরা। তাঁদের অভিযোগ, পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি বিভিন্ন অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিদের নামে একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন মানিক।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গত মঙ্গলবার এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ED)-র হাতে গ্রেফতার হয়েছেন নদীয়ার পলাশিপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক মানিক ভট্টাচার্য। গতকালই তাঁকে পেশ করা হয়েছে ব্যাঙ্কশাল আদালতে। কিন্তু, তদন্তে একদমই সহযোগিতা করছেন না বলে মানিকের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ জানিয়েছেন গোয়েন্দারা।

এদিন আদালতের সওয়ালে ইডির আইনজীবী জানান, শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় অসংখ্য গুরুতর অভিযোগ এসেছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন সভাপতির বিরুদ্ধে। চাকরি দেওয়ার নামে শুধু টাকা নিয়েই ক্ষান্ত হননি তৃণমূল বিধায়ক। দীর্ঘদিন ধরে বিধায়ক ও পর্ষদ সভাপতির প্রভাব খাটিয়ে নিজের পুত্রের নামে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন তিনি।

আদালত সূত্রের খবর, মানিক পুত্রের নিজস্ব একটি সংস্থার সাথে প্রাথমিকভাবে চুক্তি হয় শিক্ষক শিক্ষণ সংস্থার। ওই চুক্তির ভিত্তিতে ২ কোটি ৬৪ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছিলেন মানিক। টাকা নিলেও প্রতিশ্রুতি পূরণ করেনি মানিক পুত্রের সংস্থা। কোনও টাকা ফেরতও দেয়নি তাঁরা। ইডির দাবি, পুরো ঘটনাটাই ঘটেছে মানিকের মধ্যস্থতায়।

আদালতে ইডি আধিকারিকরা আরও বলেন, পরিবারের বিভিন্ন সদস্যদের নামে একাধিক ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খুলতেন মানিক। সেখানে জমা হত বিপুল পরিমাণ অর্থ। কিন্তু সেই অর্থের উৎস কী তার সঠিক কোনও উত্তর মানিকের থেকে এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। এখানেই শেষ নয়, পারিবারিক সদস্যদের সাথে অজানা ব্যক্তিদের নাম জুড়ে দিয়ে খোলা হয়েছে জয়েন্ট একাউন্ট। সেখানেও বিপুল পরিমাণ টাকা থাকতে পারে বলে আশঙ্কা ইডির।

এছাড়াও ব্যাঙ্কশাল আদালতে ইডি দাবি করে মানিক ভট্টাচার্যের আমলে প্রায় ৬০ হাজার নিয়োগ হয়েছে। সেক্ষেত্রে দুর্নীতির পরিমাণ প্রচুর তা অনুমান করছে কেন্দ্রীয় সংস্থাটি। টাকার বিনিময়ে সমস্ত চাকরি হয়েছে। একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে গচ্ছিত রাখা হত সেইসব ঘুষের টাকা।

মানিক ভট্টাচার্য
TET Scam: সুপ্রিমকোর্টেও ধাক্কা মানিক ভট্টাচার্যের! খারিজ রক্ষাকবচের আবেদন

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in