SFI-DYFI: রাজ্যজুড়ে চোরের রাজনীতি! মমতা ব্যানার্জীকে গ্রেপ্তারের দাবি বাম ছাত্র-যুব সংগঠনগুলির

DYFI-র রাজ্য সভাপতি বলেন, ‘গোটা রাজ্য জুড়ে চোরের রাজনীতি শুরু হয়েছে। পার্থবাবু জেলে গেছেন। একেরপর এক নেতা মন্ত্রীরা জেলে যাওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছেন।'
SFI-DYFI-এর মিছিল
SFI-DYFI-এর মিছিলছবি নিজস্ব

শনিবার বাম ছাত্র-যুব সংগঠনের ডাকে ছাত্রনেতা আনিস খানের খুনীদের কঠোর শাস্তি চেয়ে মৌলালি থেকে ধর্মতলা পর্যন্ত মিছিল হয়। আনিস খানের খুনিদের শাস্তির দাবির পাশাপাশি শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর গ্রেপ্তারিরও দাবি তোলা হয়।

আনিস খানের হত্যা মামলায় সিটের তদন্তে সন্তুষ্ট নন তাঁর বাবা সালেম খান। তিনি বার বার দাবি করেছেন সিবিআই তদন্তের। শনিবার আনিস খানের খুনিদের শাস্তিদের দাবিতে বিশাল মিছিল করে বাম ছাত্র-যুব সংগঠন SFI এবং DYFI। মিছিলের মূল স্লোগান ছিল ‘চোর ধরো জেল ভরো’। DYFI-র রাজ্য সভাপতি বলেন, ‘গোটা রাজ্য জুড়ে চোরের রাজনীতি শুরু হয়েছে। পার্থবাবু জেলে গেছেন। একেরপর এক নেতা মন্ত্রীরা জেলে যাওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছেন।' তিনি আরও জানান, পুলিশ যদি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে চার্জশীট তৈরি না করে তাহলে বাংলার জনগণ চার্জশীট লিখবে’।

আন্দোলনকারীরা মিছিল থেকে মমতা ব্যানার্জীকে গ্রেফতারেরও দাবি জানানো হয়। পাশাপাশি আনিসের খুনিদের যতদ্রুত সম্ভব গ্রেপ্তার করতে হবে বলেও জানায়। মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন DYFI রাজ্য সম্পাদক মীনাক্ষী মুখার্জী, SFI রাজ্য সভাপতি প্রতীকউর রহমান সহ অন্যান্যরা।

উল্লেখ্য, শনিবার এসএসসি চাকরিপ্রার্থীরাও শিয়ালদহ স্টেশনে বিক্ষোভ দেখায়। তারাও কার্যত একই স্লোগান তোলে। ‘চোর ধরো জেল ভরো’। চাকরিপ্রার্থীদের দাবি, দুর্নীতি, তোলাবাজ নয় তাঁরা চায় যোগ্যতার ভিত্তিতে দ্রুত নিয়োগ। তাঁদের দাবি, সাদা খাতা জমা দিয়ে অনেকে চাকরি করছে। কিন্তু মেধার ভিত্তিতে পরীক্ষা দিয়েও বঞ্চনার শিকার হতে হচ্ছে তাঁদের। এর জবাব কমিশনকে দিতে হবে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in