SSC Scam: নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডে CBI-র ভূমিকায় অসন্তুষ্ট বিচারপতি গাঙ্গুলি! নয়া সিট গঠনের নির্দেশ

বিচারপতি বলেন, সিবিআই খুব আস্তে আস্তে কাজ করছে, কেন করছে সেটা তারাই জানে। ৬ মাসে গ্রুপ ডি-র ৫৪২ জনের মধ্যে মাত্র ১৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে!
বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়
বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়গ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

নিয়গ দুর্নীতিকাণ্ডে সিবিআই-র নতুন সিট গঠন করল কলকাতা হাইকোর্ট। পুরনো সিট থেকে দু’জনকে বাদ দিয়ে নতুন ৪ জনকে নিয়োগের নির্দেশ দিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলি

গ্রুপ ডি পদে নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তের জন্য সিবিআইকে ১৭ জুন সিট গঠনের নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলি। এরপর একাধিক শুনানিতে সিটের তদন্ত প্রক্রিয়া নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। বুধবার এই পুরনো সিট ভেঙে দেন তিনি। আদালতে বিচারপতি গাঙ্গুলি বলেন, 'সিবিআই খুব আস্তে আস্তে কাজ করছে। কেন করছে সেটা তারাই জানে। ৬ মাসে গ্রুপ ডি-র ৫৪২ জনের মধ্যে মাত্র ১৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে!' বেআইনিভাবে চাকরিপ্রাপকদের ঠিকানা পুলিশ সুপারের কাছ থেকে নেওয়া হয়েছে কিনা তা নিয়েও সিটকে প্রশ্ন করেন তিনি।

সিবিআই-র আইনজীবী আদালতে বলেন, 'আমরা বৃহত্তর চক্রান্তের বিষয়টি দেখছি। টাকার উৎস খোঁজার চেষ্টা করছি। কাদের কাছে এই টাকা গিয়েছে তা দেখা হচ্ছে, আমরা সমস্ত নথি সংগ্রহ করছি।'

সিবিআই-র নতুন সিটের নেতৃত্ব দেবেন ডিআইজি অখিলেশ সিং। বিচারপতি বলেন, ৭ দিনের মধ্যে অখিলেশ সিং যেখানে আছেন সেখান থেকে নিয়ে আসতে হবে। তবে ওনাকে বদলি করা যাবে না। বিচারপতির নির্দেশ মেনে সিবিআই আধিকারিকেরা নতুন অফিসারদের নাম পেশ করেন। নতুন ৪ সদস্য হলেন, অংশুমান সাহা (ডেপুটি সুপার), প্রদীপ ত্রিপাঠী, বিশ্বনাথ চক্রবর্তী এবং ওয়াসিম আক্রম খান। যে দু’জনকে বাদ দেওয়া হয়ছে তাঁরা আর কোনো নথি খতিয়ে দেখতে পারবেন না বলেও জানিয়েছেন বিচারপতি গাঙ্গুলি।

বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়
'হয় নিয়োগ, না হলে মৃত্যু' - চাকরিপ্রার্থীদের সাথে পুলিশের তুমুল ধস্তাধস্তি, রণক্ষেত্র কালিঘাট

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in