প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রীকে লক্ষ্য করে জয় শ্রীরাম ধ্বনি - রাজনৈতিক মহলে নিন্দার ঝড়

প্রত্যেকের নিজ নিজ পদের গরিমা আছে। আজ জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিয়ে মমতা ব্যানার্জিকে অপমানিত করার চেষ্টা হয়েছে। আমি তাঁর বিরুদ্ধ রাজনীতি করি। কিন্তু বাঙলার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তাঁর পদমর্যাদাকে সকলের সম্মান জানানো উচিত। আসলে এটা পরিকল্পিতভাবে মমতা ব্যানার্জিকে অপমানিত করার চেষ্টা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপি যখন নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বোসকে নির্বাচনের পণ্য বানানোর চেষ্টা করছে তখন মমতা ব্যানার্জির উচিত ছিলো সাবধানে পা ফেলা। এটা সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে করা হয়েছে। এই ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী নিজের পদকেই অসম্মান করলেন। এতে বাঙলার ভাবধারার ওপর রাজনৈতিক এবং সাংস্কৃতিক ডাকাতি হল। আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। বাঙলার সংস্কৃতির ওপর আঘাত হলে আমরা তা বরদাস্ত করবো না। শনিবার একথা জানিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

এই ঘটনার পর এক বিবৃতিতে বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু বলেন - শনিবার কলকাতায় প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মবার্ষিকী পালনের সরকারী অনুষ্ঠানে যে স্লোগান তোলা হয়েছে তা অনুচিত। মুখ্যমন্ত্রীর ভাষণ দেওয়ার সময় এই অন্যায় কাজ করা হয়েছে। রাজ্যের পক্ষে মর্যাদাহানিকর কাজ হয়েছে। এই ঘটনা নিন্দনীয়। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকেও মনে রাখতে হবে সরকারী অনুষ্ঠানকে রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে পরিণত করা ঠিক নয়।

বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী এক বিবৃতিতে জানান - সরকারি অনুষ্ঠানকে দলীয় অনুষ্ঠানে পরিণত করা বিজেপির এই অসভ্যতার তীব্র নিন্দা করছি। এটা অসম্মানজনক, গনতান্ত্রিক শিষ্ঠাচার বিরোধী। এটা মেনে নেওয়া যায় না। প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে কার্যত রাজ্যবাসীকেই অসম্মানিত করা হয়েছে। নেতাজী জয়ন্তী অনুষ্ঠানের নামে এটা কার্যত নেতাজীর ভাবধারাকেই কলুষিত করার চেষ্টা, মোদিজীর উপস্থিতিতে।

যেদিন সংসদে শপথ গ্রহণের সময়ে জয় শ্রীরাম, আল্লাহু আকবর এবং জয় বাংলা স্লোগান উঠেছিল, সেদিনই বোঝা গিয়েছিল, সংবিধান যাঁরা মানে না তাঁরাই দেশে এবং রাজ্যে সরকার চালাচ্ছে। সংবিধানসম্মত স্পিরিটকে তাঁরা মানতে চায় না। এটা কোনওভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। আজকের ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি। আয়োজকরা সরকারের খোলসে সরকারি অনুষ্ঠানকে দলীয় অনুষ্ঠানে পরিণত করছেন। প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে এর চাইতে দুর্ভাগ্যজনক আর কিছু হয় না।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in