দমকলের প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম না থাকায় বিপত্তি- স্ট্র্যান্ড রোড অগ্নিকান্ডে রাজ্যপালের ক্ষোভ

বিজেপির সুরে সুর মিলিয়ে রাজ্যের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে রাজ্যপালের দাবি, দমকলের প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম না থাকার দরুন আগুন আয়ত্তে আনতে গিয়ে সমস্যায় পড়তে হয়েছে।
দমকলের প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম না থাকায় বিপত্তি- স্ট্র্যান্ড রোড অগ্নিকান্ডে রাজ্যপালের ক্ষোভ
ফাইল চিত্র

১০ মার্চ, কলকাতা- মঙ্গলবার পূর্ব রেলে নিউ কয়লাঘাট বিল্ডিং পরিদর্শনে যান রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। বিজেপির সুরে সুর মিলিয়ে রাজ্যের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে রাজ্যপালের দাবি, দমকলের প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম না থাকার দরুন আগুন আয়ত্তে আনতে গিয়ে সমস্যায় পড়তে হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যা সওয়া ছ'টা নাগাদ নিউ কয়লাঘাট বিল্ডিংয়ের ১৩ তলায় রেলের সদর দফতরে আগুন লাগে। অগ্নিকাণ্ডের প্রধান উৎস হিসেবে প্রাথমিকভাবে সার্ভার রুমকেই চিহ্নিত করেছেন বিশেষজ্ঞরা। এই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। তার মধ্যে আছেন চারজন দমকলকর্মী, একজন পুলিশ কর্মী। ফরেনসিক দলের ধারণা, বাড়ির পুরোনো বিদ্যুতের ওয়ারিং ও ওভারলোডের কারণেই বিধ্বংসী আগুন লাগে। ঘটনাস্থলে যায় দমকলের কুড়িটি ইঞ্জিন। ওইদিন রাতেই ঘটনাস্থলে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি রেলের গাফিলতির অভিযোগ তোলেন। তাঁর বক্তব্য, চাওয়া সত্ত্বেও রেলের কাছ থেকে ওই বিল্ডিংয়ের নকশা পাওয়া যায়নি। নকশা পাওয়া গেলে এতজনের মৃত্যু এড়ানো সম্ভব হত। ঐদিনই গভীর রাতে রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল টুইট করে মুখ্যমন্ত্রীর সব অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছেন।

দমকলের প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম না থাকায় বিপত্তি- স্ট্র্যান্ড রোড অগ্নিকান্ডে রাজ্যপালের ক্ষোভ
মইদুলের মায়ের শপথ রাজ্যের কোটি কোটি কন্ঠে প্রতিধ্বনিত করবো - কোতুলপুরে স্মরণসভায় মহম্মদ সেলিম

অন্যদিকে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব দাবি করেছে- দমকল ঘটনাস্থলে দ্রুত না পৌঁছনোতেই এই বিপত্তি। এদিন মৃতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে রাজ্যপাল বলেন, 'ঘটনাটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক।' রেলের পাশে দাঁড়িয়ে বলেন, 'রেলের আধিকারিকরা খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসেন। দমকল অনেক দেরিতে আসে। আর দমকলের কাছে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম না থাকাতেই এই প্রাণহানি ঘটেছে। স্বভাবতই রাজ্যপালের এই বক্তব্যকে ঘিরে রাজ্যের সঙ্গে ফের সংঘাতের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in