সেচ দপ্তর থেকে সরিয়ে দেবার সময় একজন সতীর্থর কাছে ন্যূনতম সৌজন্য আশা করেছিলাম - রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়

পদত্যাগ করে আমার খুব খারাপ লাগছে। আমাকে এরকম একটা সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। শুক্রবার রাজ্য মন্ত্রীসভা থেকে পদত্যাগ করার পর এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিন আরও জানান - মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ, তিনি দীর্ঘদিন আমাকে মন্ত্রীসভায় কাজ করার সুযোগ দিয়েছেন। আমি যতদিন বেঁচে থাকবো তাঁর কাছে চির কৃতজ্ঞ থাকবো।

মন্ত্রীত্ব ছাড়ার প্রসঙ্গে তিনি জানান - আমার মনের মধ্যেও অনেক চাপা ক্ষোভ, বেদনা থেকেই আজ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি মন্ত্রী হিসেবে জন্মাইনি, মরবোও না। হয়তো চিরকাল কেউ এক দপ্তরের মন্ত্রী থাকেনা। আমাকে যে যে দপ্তরের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আমি নিষ্ঠার সঙ্গে সেই দায়িত্ব পালন করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু আমাকে সেচ দপ্তর থেকে সরিয়ে দেবার সময় আমি একজন সতীর্থর কাছ থেকে ন্যূনতম সৌজন্য আশা করেছিলাম। আমাকে টিভিতে দেখতে হয়েছিলো আমাকে সেচ দপ্তর থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিলো। তখনই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম মন্ত্রীসভা ছেড়ে দেব। তখন মুখ্যমন্ত্রী আমাকে নিরস্ত করেছিলেন।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in