ব্রিকস সম্মেলনে ভারতের প্রতিনিধি হয়ে মোদীর পাশেই ছিলেন সনাতন! ঘোর কাটছে না গোয়েন্দাদের

পুলিশের কাছে জেরায় সনাতন দাবি করেছেন, ২০১৮ সালে দক্ষিণ অফ্রিকার জোহানেসবার্গ শহরে ব্রিকস সম্মেলনে বিদেশমন্ত্রকের প্রতিনিধি দলে ছিলেন তিনি। সেবারের সম্মেলনে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
ব্রিকস সম্মেলনে ভারতের প্রতিনিধি হয়ে মোদীর পাশেই ছিলেন সনাতন! ঘোর কাটছে না গোয়েন্দাদের
সনাতন রায়চৌধুরীফাইল ছবি, সৌজন্যে আজতক

গতকালই পুলিশের ‌হাতে ধরা পড়েছেন সনাতন রায়চৌধুরী। গাড়িতে নীলবাতি ও সিবিআইয়ের স্টিকার লাগিয়ে ঘুরে বেড়ানো সনাতন এতোদিন নিজেকে হাইকোর্টের আইনজীবী বলে দাবি করে এসেছেন। সুপ্রিম কোর্টের স্ট্যান্ডিং কাউন্সেল বলেও দাবি করেছেন। তাঁর স্ত্রীও সেটাই জানতেন। কিন্তু এবার পুলিশের জেরায় একের ‌পর এক চাঞ্চল‍্যকর তথ‍্য উঠে আসছে। তিনি নাকি দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্রিকস সামিটে ভারতের বিদেশমন্ত্রকের প্রতিনিধি দলে ছিলেন! সাধারণ মানুষের পাশাপাশি গোয়েন্দারাও হতবাক সনাতনের এই কান্ডে।

পুলিশের কাছে জেরায় সনাতন দাবি করেছেন, ২০১৮ সালে দক্ষিণ অফ্রিকার জোহানেসবার্গ শহরে ব্রিকস সম্মেলনে বিদেশমন্ত্রকের প্রতিনিধি দলে ছিলেন তিনি। সেবারের সম্মেলনে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। জেরায় সনাতন আরো জানিয়েছেন, ২০০৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করেছেন তিনি। দমদম লোকসভা কেন্দ্র থেকে ‘লোক জনশক্তি পার্টি’র হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন তিনি।

গড়িয়াহাট থানা সূত্রে খবর, গাড়িতে ‘অ্যাডভোকেট’-এর পাশাপাশি ‘সিবিআই’ (CBI) লেখা স্টিকারও ছিল সনাতনের। সেই প্রসঙ্গে সনাতনের দাবি, সে রাজ্য সরকারের হয়ে সিবিআই মামলা লড়েন স্ট্যান্ডিং কাউন্সিলে। এমনিতে তিনি হাইকোর্টের আইনজীবী। অভিযোগ, গড়িয়াহাট এলাকায় নিজের ভুয়ো পরিচয় দিয়ে বেআইনিভাবে জায়গা-জমি হাতানোর চেষ্টা করছিলো সনাতন। যে সম্পত্তির বাজার মূল্য প্রায় ১০ কোটি টাকা!

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in