নিখোঁজ কর্মীর সন্ধান পেতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ বাম যুব সংগঠন, শুনানি সোমবার

শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টে 'হেবিয়াস কর্পাস' আবেদন দায়ের করা হয়েছে। বাম যুব সংগঠনের তরফ থেকে আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য এই মামলা দায়ের করেছেন।
নিখোঁজ কর্মীর সন্ধান পেতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ বাম যুব সংগঠন, শুনানি সোমবার
প্রতীকী সংগঠন

নবান্ন অভিযানে গিয়ে নিখোঁজ বাম যুব কর্মী দীপক পাঁজার সন্ধান পেতে শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টে 'হেবিয়াস কর্পাস' আবেদন দায়ের করা হয়েছে। বাম যুব সংগঠনের তরফ থেকে আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য এই মামলা দায়ের করেছেন। আগামী সোমবার এই মামলার শুনানি দিন ধার্য হয়েছে।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি শিক্ষা-কর্মসংস্থানের দাবিতে বাম ছাত্র-যুবদের নবান্ন অভিযানে অংশ নেওয়ার পর থেকেই নিখোঁজ দীপক পাঁজা। তাঁর পরিবারের অভিযোগ, থানায় মামলা দায়ের করা সত্ত্বেও পুলিশ বিষয়টিতে কোনো গুরুত্বই দিচ্ছে না। তাই বাধ্য হয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁরা।

এর আগে গত বুধবার নিখোঁজ দীপক পাঁজার পরিবারের সাথে দেখা করতে এসেছিলেন সিপিআই(এম) বিধায়ক ইব্রাহিম আলি, ডিওয়াইএফআই নেত্রী মীনাক্ষী মুখার্জি, এসএফআই রাজ্য সভাপতি প্রতিকুর রহমান সহ স্থানীয় নেতৃত্ব। দীপক পাঁজার নিখোঁজ হওয়ার পিছনে তাঁরা স্পষ্টভাবে পুলিশকে দায়ী করেছে।

অন‍্যদিকে, এই অভিযানে গিয়ে গুরুতর আহত মইদুল ইসলাম মিদ্দার মৃত্যুর ঘটনার তদন্তে বিশেষ দল গড়েছে লালবাজার। বাম যুব নেতৃত্বের অভিযোগ, জানবাজার থেকে ধর্মতলা পর্যন্ত এস এন ব‍্যানার্জি রোডের দু'ধারের দোকানের লোকজনকে নির্দিষ্ট 'বয়ান' শেখাচ্ছে নিউমার্কেট থানার পুলিশ। বয়ানে বলতে বলা হচ্ছে, নবান্ন অভিযানের দিন ছাত্র যুবরাই ব‍্যাগে ইট-পাথর এনেছিলেন এবং পুলিশের উদ্দেশ্যে ছুঁড়েছিলেন। পুলিশ পরিস্থিতি সামলানোর চেষ্টা করছিলেন। স্থানীয়দের একাংশও বাম যুব নেতৃত্বের এই অভিযোগ স্বীকার করেছেন।

তবে পুলিশের এই উদ্যোগের পাল্টা প্রচার শুরু করেছে বাম যুবরা। নিউমার্কেট এলাকার দোকানগুলোতে পোস্টার লাগাচ্ছে তাঁরা, যেখানে লেখা রয়েছে - পুলিশের নয়, নিজের বিবেকের কথা শুনুন।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in