শিক্ষিকা বদলি মামলায় হাইকোর্টে ধাক্কা খেল রাজ্য, নিয়ম নিয়ে প্রশ্ন তুলে বদলিতে স্থগিতাদেশ জারি

বিচারপতি সৌগত ভট্টাচার্য বলেন, চুক্তিভিত্তিক শিক্ষিকাদের বদলি করা যায় না। তাঁদের বদলির কোনো নির্দিষ্ট নিয়ম নেই। কোন‌ নিয়মের ভিত্তিতে সরকার এভাবে বদলির নির্দেশিকা জারি করেছে?
শিক্ষিকা বদলি মামলায় হাইকোর্টে ধাক্কা খেল রাজ্য, নিয়ম নিয়ে প্রশ্ন তুলে বদলিতে স্থগিতাদেশ জারি
কলকাতা হাইকোর্টফাইল ছবি

চুক্তিভিত্তিক শিক্ষিকার বদলির মামলায় কলকাতা হাইকোর্টে বড় ধাক্কা খেল রাজ‍্য সরকার। বদলির ওপর অন্তর্বর্তীকালীন স্থগিতাদেশ জারি করলো হাইকোর্ট। আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত বদলি করা যাবে না মামলাকারী শিক্ষিকাকে। পাশাপাশি বদলির নির্দেশকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে আদালত।

কিছুদিন আগে বদলির প্রতিবাদে বিকাশ ভবনের সামনে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন পাঁচ শিক্ষিকা। তাঁদেরই একজন কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন। সেই মামলার শুনানিতে আজ বিচারপতি সৌগত ভট্টাচার্য বলেন, চুক্তিভিত্তিক শিক্ষিকাদের বদলি করা যায় না। তাঁদের বদলির কোনো নির্দিষ্ট নিয়ম নেই। কোন‌ নিয়মের ভিত্তিতে সরকার এভাবে বদলির নির্দেশিকা জারি করেছে?

সরকারকে জবাব দেওয়ার জন্য প্রাথমিকভাবে আধঘন্টা সময় দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সরকার আজ কোনো উত্তর দিতে পারে নি। পরিবর্তে সময় চান সরকারী আইনজীবি। এরপরই সরকারকে উত্তর দেওয়ার সময় দিয়ে বদলির নির্দেশের ওপর স্থগিতাদেশ জারি করে আদালত।

আগামী ১৫ নভেম্বর এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

চলতি বছরের ১৯ আগস্ট হুগলির বলাগড় থেকে মালদায় বদলি করা হয় অণিমা নাথ নামের ওই মামলাকারী শিক্ষিকাকে। তিনি ভোকেশনাল বিভাগের শিক্ষিকা। বদলির নির্দেশকে চ‍্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন তিনি। তাঁর অভিযোগ, বেতন বৃদ্ধি, চাকরির স্থায়ীকরণের দাবিতে আন্দোলন করায় বেআইনিভাবে তাঁকে বদলি করা হচ্ছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in