Central Vista প্রকল্প বাতিল করে সবার জন্য ভ্যাকসিন, অক্সিজেনের দাবি ইয়েচুরির

ইয়েচুরি বলেন – এই প্রকল্প বাতিল করার মতকে গুরুত্ব না দিয়ে মোদি ব্যক্তিগত অহংকার দেখানোর জন্য ২০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্পের জন্য লকডাউনকে পাশ কাটিয়ে একে ‘জরুরি কাজ’-এর তালিকাভুক্ত করেছেন।
Central Vista প্রকল্প বাতিল করে সবার জন্য ভ্যাকসিন, অক্সিজেনের দাবি ইয়েচুরির
নরেন্দ্র মোদী ও সীতারাম ইয়েচুরি ফাইল ছবি সংগৃহীত

দেশের বর্তমান ভয়ঙ্কর করোনা পরিস্থিতিতে আরও একবার দিল্লির সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রকল্প বাতিল করার দাবি জানালেন সিপিআই(এম) সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। মঙ্গলবার এক ট্যুইট বার্তায় বর্তমান পরিস্থিতিতে অক্সিজেন এবং ভ্যাকসিন সরবরাহকে আরও বেশি গুরুত্ব দিয়ে অবিলম্বে এই বিলাসবহুল প্রকল্প বাতিল করার দাবি জানান ইয়েচুরি।

এদিনের ট্যুইটে ইয়েচুরি বলেন – এই প্রকল্প বাতিল করার মত সকলের। কিন্তু সেই মতামতে গুরুত্ব না দিয়ে মোদি ব্যক্তিগত অহংকার দেখানোর জন্য ২০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্পের জন্য লকডাউনকে পাশ কাটিয়ে একে ‘জরুরি কাজ’-এর তালিকাভুক্ত করেছেন। অন্যদিকে লাখো মানুষ বাঁচবার জন্য অক্সিজেন চেয়ে ছটফট করছে। অবিলম্বে এই প্রকল্প বাতিল হোক। মানুষের জন্য অক্সিজেন এবং ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করা হোক।

এদিনের ট্যুইটের সঙ্গে সীতারাম ইয়েচুরি ডিজিটাল মিডিয়ায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন শেয়ার করেছেন। যে প্রতিবেদন অনুসারে – বর্তমান কোভিড পরিস্থিতিতেও সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পের কাজ বন্ধ করা হয়নি। সেখানে কাজ চলছে তিন শিফটে। দিল্লিতে লকডাউন জারি থাকলেও সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পে কাজ করানোর শ্রমিক আনার জন্য ১৮০ টি গাড়িকে বিশেষ অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গতবছর লকডাউনের সময় সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রকল্পে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছিলো। এই মুহূর্তে দিল্লিতে লকডাউন চললেও ২০ হাজার কোটি টাকার এই প্রকল্পে জোরকদমে কাজ চলছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনরা এই প্রকল্পের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন ইতিমধ্যেই। সব বিরোধী দলের নেতৃত্বই সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রকল্প বাতিলের পক্ষে।

গত ২৫ তারিখ এক ব্যক্তি ট্যুইটারে লেখেন – সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রোজেক্টে ২০ হাজার কোটি খরচ হবে। যদি এই টাকা দিয়ে ভেন্টিলেটর, আইসিইউ বেড কেনা হত তাহলে বহু মানুষের প্রাণ বেঁচে যেত। আফসোস এটাই যে যারা নীতি তৈরি করেন তাঁদের কাছে মানুষের প্রাণের চেয়ে নিজেদের আরামটা বেশি জরুরি।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in