Uttarakhand: ইস্তফা দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী তীর্থ সিং রাওয়াত

গত ৩ দিনে ২বার BJP সভাপতি জে পি নাড্ডার সঙ্গে দিল্লিতে বৈঠক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী রাওয়াত। এরপর শুক্রবার তিনি দেরাদুনের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে গেছেন এবং রাজ্যপাল বেবী রানী মৌর্যর সঙ্গে দেখা করার সময় চেয়েছেন।
Uttarakhand: ইস্তফা দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী তীর্থ সিং রাওয়াত
উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী তীর্থ সিং রাওয়াতফাইল ছবি সংগৃহীত

পদত্যাগ করতে চলেছেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী তীর্থ সিং রাওয়াত। জানা গেছে, ইতিমধ্যেই বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডার কাছে তিনি ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন। সূত্রের খবর অনুসারে, তিনি নিয়ম অনুযায়ী ৬ মাসের মধ্যে বিধানসভায় নির্বাচিত হয়ে আসতে পারবেন না।

জানা গেছে, গত তিন দিনে দু’বার বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডার সঙ্গে দিল্লিতে বৈঠক করেছেন বিজেপি শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী রাওয়াত। এরপর শুক্রবার তিনি দেরাদুনের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে গেছেন এবং রাজ্যপাল বেবী রানী মৌর্যর সঙ্গে দেখা করার সময় চেয়েছেন। গত ১০ মার্চ পূর্ববর্তী মুখ্যমন্ত্রী ত্রিভেন্দ্র সিং রাওয়াতকে সরিয়ে তীর্থ সিং রাওয়াতকে মুখ্যমন্ত্রী করেছিলো বিজেপি।

বিজেপি সূত্রের খবর অনুসারে সাংবিধানিক সংকটের জেরে দল সিদ্ধান্ত নিয়েছে তীর্থ সিং রাওয়াতের বদলে রাজ্যের কোনো বর্তমান বিধায়ককে মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন করা হবে। তীর্থ সিং রাওয়াত তাঁর ইস্তফা দেবার পরেই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সূত্রের খবর অনুসারে দলের অভিজ্ঞ বিধায়ক সতপাল মহারাজ এবং ধন সিং রাওয়াতকে জরুরি ভিত্তিতে দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হয়েছে।

গত তিন দিনে দিল্লি গিয়ে রাওয়াত বৈঠক করেছেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সঙ্গে। মুখ্যমন্ত্রী রাওয়াত বর্তমানে গাড়োয়াল লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ। নিয়ম অনুসারে তাঁকে আগামী ৬ মাসের মধ্যে বিধানসভায় নির্বাচিত হয়ে আসতে হবে। তারিখের হিসেবে তাঁকে নির্বাচিত হতে হবে আগামী ১০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে। কিন্তু বর্তমান কোভিড পরিস্থিতিতে যা কিছুটা অসম্ভব।

উত্তরাখণ্ড বিজেপির দায়িত্বপ্রাপ্ত দুষ্মন্ত গৌতম জানিয়েছেন, দল এই মুহূর্তে কোনো উপনির্বাচনের কথা ভাবছে না। দিল্লি থেকে উত্তরাখণ্ড খুবই কাছে। প্রতিদিনই রাজ্যের নেতাদের সঙ্গে দিল্লির যোগাযোগ থাকছে। কাজেই এই বিষয় সামাল দিতে খুব একটা অসুবিধে হবেনা।

মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবার পর বারবার বিভিন্ন ঘটনায় বিজেপিকে বিব্রত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী তীর্থ সিং রাওয়াত। একাধিকবার বিভিন্ন বিষয়ে মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন। এমনকি কুম্ভ মেলার সময় তাঁর ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। যদিও পূর্ববর্তী মুখ্যমন্ত্রীর প্রতি রাজ্যবাসীর অসন্তোষের কারণেই তাঁকে সরিয়ে তীর্থ সিং রাওয়াতকে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসিয়েছিলো বিজেপি। যদিও রাজনৈতিক মহলের মতে, তাতেও হারানো জমি পুনরুদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। আগামী বছরের গোড়ায় রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই মুহূর্তে বিজেপি কোনো ঝুঁকি নিতে চাইছে না।

- with IANS input

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in