উত্তরপ্রদেশে প্রস্তাবিত ‘এক সন্তান নীতি’ সমাজের ভারসাম্য নষ্ট করতে পারে - বিশ্ব হিন্দু পরিষদ

ভিএইচপি-র সভাপতি অলোক কুমার চিঠিতে উল্লেখ করেছেন, এক সন্তান নয়, ২ সন্তান নীতি প্রচার করা উচিত।
উত্তরপ্রদেশে প্রস্তাবিত ‘এক সন্তান নীতি’ সমাজের ভারসাম্য নষ্ট করতে পারে - বিশ্ব হিন্দু পরিষদ
যোগী আদিত্যনাথফাইল চিত্র- সংগৃহীত

উত্তরপ্রদেশের জন্মনিয়ন্ত্রণ খসড়া বিলে এক সন্তান নীতির যে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, তা অবিলম্বে প্রত্যাহার করার আবেদন জানিয়েছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। এই মর্মে রাজ্য আইন কমিশনে চিঠি লিখেও আবেদন করা হয়েছে।

২ পাতার এই চিঠিতে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে জানানো হয়েছে, জন্ম নিয়ন্ত্রণ খসড়া বিলে পূর্ণ সমর্থণ থাকলেও খসড়া বিলের কিছু অংশে ঘোর আপত্তি রয়েছে ভিএইচপি-র। এক সন্তান নীতির ফলে অন্য সম্প্রদায়ের সঙ্গে ভারসাম্য রক্ষায় অসাম্য তৈরি হবে।

ভিএইচপি-র সভাপতি অলোক কুমার চিঠিতে উল্লেখ করেছেন, এক সন্তান নয়, ২ সন্তান নীতি প্রচার করা উচিত। কারণ, এক সন্তান নীতি নিয়ে চললে সমাজের ভারসাম্য নষ্ট হবে। এই মর্মে উত্তরপ্রদেশ সরকারের কাছেও আবেদন করা হয়েছে।

সম্প্রতি যোগী আদিত্যনাথ সরকার জন্ম নিয়ন্ত্রণ খসড়া বিল প্রকাশ করেছে রাজ্যের আইন কমিশনের ওয়েবসাইটে। ১৯ জুলাই পর্যন্ত খসড়া বিলে পরিবর্তন সংক্রান্ত পরামর্শও চাওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, ভিএইচপি তরফ থেকে টোটাল ফার্টিলিটি রেট (টিএফআর)-এর দিকেও নজর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এক সন্তান নীতির ফলে নানারকম নেতিবাচক সামাজিক ও অর্থনৈতিক প্রভাব পড়বে বলে মত ভিএইচপির। এক সময় এই এক সন্তানকেই ২ জন অভিভাবক ও চারজন দাদু-দিদাকে দেখতে হবে, যা অসুবিধাজনক। অবিলম্বে এক সন্তান নীতিতে কিছু পরিবর্তন না আনতে পারলে, এই নীতি প্রত্যাহার করা হোক বলেও আবেদন করা হয়েছে চিঠিতে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চিনে এক সন্তান নীতি চালু করার পরও পরে তা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

-with IANS inputs

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in