Uttar Pradesh: রাষ্ট্রপতির কনভয়ের জন্য রাস্তা বন্ধ, অসুস্থ মহিলার মৃত্যু, ক্ষমা প্রার্থনা পুলিশের

প্রয়াত ৫০ বছর বয়সী বন্দনা মিশ্র ইন্ডিয়ান অ‍্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ড্রাস্ট্রিজের কানপুর শাখার মহিলা বিভাগের প্রধান ছিলেন। গত রাতে গুরুতর অসুস্থ হওয়ার পরিবারের সদস্যরা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছিলেন।
Uttar Pradesh: রাষ্ট্রপতির কনভয়ের জন্য রাস্তা বন্ধ, অসুস্থ মহিলার মৃত্যু, ক্ষমা প্রার্থনা পুলিশের
বন্দনা মিশ্রের পরিবারের সঙ্গে পুলিশ আধিকারিকরাছবি - কানপুর নগর পুলিশ কমিশনারেটের সৌজন্যে

রাষ্ট্রপতি আসবেন। তাই সমস্ত ট্র‍্যাফিক বন্ধ করে রেখেছিল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। এই কারণে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া ‌গেল না গুরুতর অসুস্থ এক মহিলাকে। কয়েকঘন্টার মধ্যেই মৃত্যু হয়েছে ওই মহিলার।

শুক্রবার রাতে তিনদিনের বিশেষ সফরে উত্তরপ্রদেশে নিজের গ্রামে এসেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। গতকাল রাতে কানপুর পৌঁছেছেন তিনি। কানপুর জেলায় তাঁর গ্রাম। নিজের আত্মীয়স্বজন-বন্ধুবান্ধবদের সাথে দেখা করতে এসেছেন তিনি। সোমবার এবং মঙ্গলবার লখনৌতে থাকবেন তিনি।

প্রয়াত ৫০ বছর বয়সী বন্দনা মিশ্র ইন্ডিয়ান অ‍্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ড্রাস্ট্রিজের কানপুর শাখার মহিলা বিভাগের প্রধান ছিলেন। গতকাল রাতে গুরুতর অসুস্থ হওয়ার পর তাঁর পরিবারের সদস্যরা তাঁকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছিলেন। এই পথেই কানপুর আসছিলেন রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ। এই কারণে এই পথের যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছিল পুলিশ।

সূত্র মারফত জানা গেছে, এই পরিস্থিতির কারণে প্রচুর ট্র‍্যাফিক জমেছিল যার ফলে বন্দনা মিশ্রকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে দেরি হয়েছিল। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এই ঘটনার খবর জানাজানি হতেই ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে আমজনতার মধ্যে। চাপের মুখে পড়ে পরিবারের কাছে ক্ষমা চান কানপুরের পুলিশ প্রধান অসীম অরুণ। ট‍্যুইটারে তিনি জানিয়েছেন, "কানপুর পুলিশ এবং আমার পক্ষ থেকে বন্দনা মিশ্রের মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করছি। এই ঘটনা আমাদের কাছে ভবিষ্যতের জন্য একটি বড় পাঠ। আমরা আমাদের রুট ব‍্যবস্থা এমন করবো যাতে জনগণকে যতটা সম্ভব কম সময়ের জন্য আটকে রাখা হবে যাতে এই ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি আর না হয়।".

অপর একটি ট‍্যুইটে পুলিশ প্রধান জানিয়েছেন এই ঘটনায় রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ অত‍্যন্ত দুঃখ পেয়েছেন এবং ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

এই ঘটনায় এক সাব-ইন্সপেক্টর এবং তিন কনস্টেবলকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in