UP Population Bill: দুটির বেশি সন্তান হলে মিলবে না সরকারি চাকরি, সুযোগ সুবিধা - খসড়া প্রস্তাব

শনিবার লখনৌতে এই বিষয়ে খসড়া প্রস্তাব প্রকাশ করা হয়েছে। নতুন এই প্রস্তাব অনুসারে, রাজ্যে যাদের দুটির বেশি সন্তান আছে তাঁরা কোনো সরকারি সুযোগ সুবিধা পাবেন না।
UP Population Bill: দুটির বেশি সন্তান হলে মিলবে না সরকারি চাকরি, সুযোগ সুবিধা - খসড়া প্রস্তাব
মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথফাইল ছবি সংগৃহীত

উত্তরপ্রদেশে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে নতুন নীতি আনতে চলেছে যোগী আদিত্যনাথ পরিচালিত বিজেপি সরকার। শনিবার লখনৌতে এই বিষয়ে খসড়া প্রস্তাব প্রকাশ করা হয়েছে। নতুন এই প্রস্তাব অনুসারে, রাজ্যে যাদের দুটির বেশি সন্তান আছে তাঁরা কোনো সরকারি সুযোগ সুবিধা পাবেন না।

প্রস্তাবিত উত্তরপ্রদেশ পপুলেশান (কন্ট্রোল, স্টেবিলাইজেশন অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার) বিল ২০২১ অনুসারে, রাজ্যে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে আনতে এই বিল আনতে চলেছে রাজ্য সরকার। যে বিল অনুসারে, যে সব দম্পতির দুটির বেশি সন্তান থাকবে তাঁরা রাজ্য সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। তাঁদের পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দেওয়া হবেনা। এছাড়াও তাঁরা কোনো সরকারি ভরতুকি পাবেন না। পরিবারে সদস্য বেশি হলেও রেশন কার্ড সর্বাধিক ৪টিই হবে।

অন্যদিকে যাঁদের দুটি সন্তান থাকবে তাঁরা দুটি অতিরিক্ত ইনক্রিমেন্ট পাবেন, বাড়ি কেনায় ভরতুকি পাবেন এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা পাবেন। যেসব দম্পতির একটি করে সন্তান থাকবে তাঁদের ক্ষেত্রে বিশেষ কিছু সুবিধা দেওয়া হবে, অতিরিক্ত ইনক্রিমেন্ট দেওয়া হবে, স্নাতক স্তর পর্যন্ত বিনামূল্যে শিক্ষার ব্যবস্থা করা হবে এবং স্কুলে ভর্তির ক্ষেত্রে সুযোগ দেওয়া হবে।

ইউপিএসএলসি-র ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে এই বিলকে আরও উন্নত করার জন্য সাধারণের কাছ থেকে মতামত আহ্বান করা হচ্ছে। আগামী ১৯ জুলাই পর্যন্ত এই মতামত পাঠানো যাবে।

উত্তরপ্রদেশের প্রশাসনিক সূত্রে জানা গেছে, এই আইন গেজেটে প্রকাশিত হবার এক বছর পর থেকে বলবত হবে। আগামী বিধানসভা অধিবেশনে এই বিল পেশ করা হবে বলে জানা গেছে। এই আইন বলবত হলে রাজ্যের সমস্ত বিবাহিত দম্পতি এই আইনের আওতায় আসবেন। ন্যাশনাল ফ্যামিলি হেলথ সার্ভে ৪-এ প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে এই খসড়া তৈরি করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

খসড়া প্রস্তাব হিসেবে আনা হলেও এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছে সমাজবাদী পার্টি। দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে এই বিল রাজ্যের বিশেষ এক সম্প্রদায়কে লক্ষ্য করে আনা হয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in